বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

দাদন ব্যবসায়ীদের কবলে নির্মম অত্যাচারের শিকার অসহায় গৃহিণী

 

হাফিজুল হক, সাপাহার (নওগাঁ): সাপাহারে দাদন ব্যবসাহীদের কবলে পড়ে সবকিছু হারিয়ে পথে নেমেছে দুলালী নামে এক অসহায় গৃহনী।

সাংবাদিকদের নিকট দায়েরকৃত লিখিত আবেদন  সূত্রে জানা যায় সাপাহার লালমাটিয়া পাড়ার জাহাঙ্গীর এর স্ত্রী দুলালী (৩৩) ছয় (৬) মাস পূর্বে গর্ভবতী কালে সন্তান প্রসবের সময় অসুস্থ্য হয়ে পড়লে চিকিৎসা ও সিজার করার জন্য দাদন ব্যবসায়ী সাপাহার উকিলপাড়া গ্রামের অনিল এর স্ত্রী পুষ্প (৩২) নিকট হতে পনের (১৫,০০০) হাজার টাকা, সুনিল এর স্ত্রী হরিদাসী (৩৫) নিকট হতে সাত (৭,০০০) হাজার টাকা, ফিরুজের স্ত্রী মায়া (৩৬)-এর নিকট হতে সাড়ে পাঁচ (৫৫০০)হাজার টাকা, গোবিন্দের স্ত্রী  সরস্বতী এর নিকট হতে ছয় (৬০০০) হাজার টাকা ও সাপাহার লাল মাটিয়া পাড়ার সংকরের স্ত্রী লক্ষ্মী এর নিকট হতে তিন (৩০০০) হাজার টাকা দাদন হিসাবে গ্রহণ করে মূল টাকার দ্বিগুন দেয়ার পরও দাদন ব্যবসাহীরা ঐ গৃহিণীর নিকট হতে লাভের লাভ এর সূত্র ধরে আরো দ্বিগুণ টাকা দাবি করে। স্বামী মানসিক ভারসাম্যহীন দুলালীর সংসারে অভাব অনটন আর অসহায় হওয়ায় তাদের দাবি পুরন করতে না পারায় দাদন ব্যবসায়ীরা তার উপর নির্মম অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে।যার ফলে দুলালী বিভিন্ন মহলে ধরনা দিয়ে কাজ না হওয়ায় অবশেষে সাপাহার রিপোর্টার্স ফোরামের সাংবাদিকদের নিকট লিখিত আবেদন এর মাধ্যমে অবগত করেছে। এ বিষয়ে দাদন ব্যবসায়ী পুষ্প ও হরিদাসীর সাথে কথা হলে সাপাহারে অনেক লোক দাদন ব্যবসায় জড়িত আছে আমরা করলে দোষ কি বলে সাংবাদিকদের জানান।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ