বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ইসলামপন্থী ঠেকাতে জিনজিয়াংয়ে দীর্ঘায়িত হচ্ছে চীনের দমনাভিযান

জিনজিয়াংয়ে মুসলমাদের উপর চীনা সরকার দমনাভিযান অব্যাহত রেখেছে ছবি-রয়টার্স

৩০ জানুয়ারি, রয়টার্স : উইঘুর মুসলিম অধ্যুষিত চীনের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য জিনজিয়াংয়ে এক বছর ধরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ও জোরদার নজরদারি চালানোর পরও সেখানে পরিস্থিতির তেমন পরিবর্তন না হওয়ায় এই ব্যবস্থা দীর্ঘায়িত করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছে চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম। ওই এলাকায় ইসরাইলপন্থীদের কার্যকলাপের কারণে সন্ত্রাসের ঝুঁকি বহাল রয়েছে বলে উল্লেখ করেছে স্থানীয় জিনজিয়াং ডেইলি।

চীন দাবি করছে, ইসলামপন্থী গুরুতর হুমকির মুখে রয়েছে জিনজিয়াং। তারা জিনজিয়াংকে নিজেদের বাসভূমি দাবি করা উইঘুর ও সংখ্যাগরিষ্ঠ হান চাইনিজ সম্প্রদায়ের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি করতে চায়। এই অবস্থা মোকাবেলায় সরকার ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করেছে এবং নতুন নজরদারি ও সন্ত্রাসবিরোধী ব্যবস্থা নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে শহরের রাস্তার মোড়ে মোড়ে হাজার হাজার নতুন পুলিশ স্টেশন স্থাপন। গভর্নর সোহরাত জাকির সর্বপ্রথম গত ২২ জানুয়ারি এক সরকারি বৈঠকে একটি রিপোর্ট পেশ করেন। পরে সেটি রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম ডেইলি জিনজিয়াং পত্রিকায় প্রকাশ পায়। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের কার্যক্রমে পরিষ্কার হয়েছে, জিনজিয়াংয়ের সমাজকে স্থিতিশীল করার জন্য আরো কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে।

জাকির বলেন, জিনজিয়াংয়ে পরিস্থিতির মৌলিক কোনো পরিবর্তন হয়নি। সেখানে যেহেতু নিয়মিত সহিংস সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চলছে, এ জন্য বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিরুদ্ধে জোরদার সংগ্রাম ও কঠোর হস্তক্ষেপ প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, জিনজিয়াং ও এখানকার সমাজের দীর্ঘমেয়াদি শান্তি ও স্থিতিশীলতা আগামী পাঁচ বছরের গুরুত্বপূর্ণ সময়ের জন্য অবশ্যই আঞ্চলিক সরকারের সামগ্রিক লক্ষ্য হতে হবে। এই লক্ষ্য পূরণে সরকার বিশেষ কঠোর অভিযান জোরদার করে যাবে। এসব অভিযানের মধ্যে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে নিরঙ্কুশ নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং সমাজে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা স্বাভাবিক করা। জিনজিয়াংয়ে সহিংসতার জন্য বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দায়ী করে চীন। কিন্তু মানবাধিকার সংস্থাগুলো এবং প্রবাসী উইঘুর মুসলিমরা বলছেন, মুসলিমদের ধর্ম ও সংস্কৃতির ওপর চীনের নিয়ন্ত্রণ আরোপের ফলে উইঘুরদের হতাশার প্রকাশ এসব ঘটনা। অবশ্য কোনো প্রকার নিপীড়নের কথা অস্বীকার করে চীন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ