বৃহস্পতিবার ২৬ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

নেসেটের ফিলিস্তিনী সদস্যদের উপর বলপ্রয়োগের অভিযোগ

২৩ জানুয়ারি, মিডল ইস্ট আই : ইসরাইলের পার্লামেন্ট নেসেট থেকে ফিলিস্তিনী সদস্যদের বের করে দেওয়ার সময় নকীবরা অপ্রয়োজনীয় বল প্রয়োগ করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা। গত সোমবার নেসেটে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের ভাষণের সময় প্রতিবাদ জানানোয় তাদের বের করে দেওয়া হয়। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম এ খবর জানিয়েছে। ইসরায়েলি পার্লামেন্ট নেসেটে দেওয়া ভাষণে পেন্স বলেন, ‘সামনের সপ্তাহে আমাদের প্রশাসন জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস খোলার পরিকল্পনা শুরু করবে। আগামী বছর শেষ হওয়ার আগেই সেখানে মার্কিন দূতাবাস খোলা হবে।’

তবে ইসরায়েলি আরব সংসদ সদস্যদের প্রতিবাদের মুখে অল্প সময়ের জন্য পেন্সের বক্তব্য বাধাগ্রস্ত হয়। প্রতিবাদকারীরা আরবি ও ইংরেজি ভাষায় লেখা প্ল্যাকার্ড দেখিয়ে প্রতিবাদ করতে থাকেন। তাতে লেখা ছিল, ‘জেরুসালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী’। পরে আন্দোলনকারীদের বের করে দেওয়া হয়। পেন্স সে সময় হাসিমুখে বলেন, ‘এমন অস্থির গণতন্ত্রের সামনে দাঁড়ানো আমার জন্য খুবই অপমানজনক’।

তার আগেই ইসরাইলি পার্লামেন্টের শীর্ষ আরব দল সোমবার সতর্ক করে দিয়ে বলেছিল তারা পেন্সের বক্তব্যকে বর্জন করবে। জয়েন্ট আরব লিস্ট দলের নেতা আয়মান ওদেহ এটাকে তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার হিসেবে দাবি করেন। পার্লামেন্ট থেকে বের করে দেওয়ার পর ইংরেজি ও হিব্রু ভাষায় পোস্ট দেওয়া এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘যারা দখলদারিত্বের বিরোধী ও শান্তির স্বপ্ন দেখেন তাদের সম্মানেই পার্লামেন্ট অধিবেশনে আমাদের আজকের এই প্রতিবাদ’। পার্লামেন্ট থেকে বের করে দেওয়ার আগে ১৩ জন ফিলিস্তিনী সদস্য হাতে প্ল্যাকার্ড তুলে ধরেন। তাতে লেখা ছিল, ‘জেরুজালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী’। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ