সোমবার ২৯ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ : মাশরাফি

স্পোর্টস রিপোর্টার : ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ শ্রীলংকার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়ের পর আজ শ্রীলংকার বিপক্ষেও জয়ের জন্য মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের এই ম্যাচে লড়াইটা শ্রীলংকার বিপক্ষে। তবু ঘুরেফিরে চলে আসছে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের কথা। অবশ্য এর কারণও আছে। এর আগে হাথুরুসিংহে বাংলাদেশের কোচ ছিল এবার তিনি নিজ দেশ শ্রীলংকার কোচ।  বাংলাদেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পথে যিনি রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা,  সেই হাথুরুসিংহের দলের বিপক্ষেই যে মাঠে নামাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। গত অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের পরই বাংলাদেশের কোচের পদ ছেড়ে দেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। নিজ দেশ শ্রীলংকার কোচের দায়িত্ব নেন তিনি। তাই বাংলাদেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজটি হাথুরুসিংহের প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট। তবে জিম্বাবুয়ের কাছে হেরে নিজ দায়িত্ব শুরু করেন হাথুরু। আজ বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলংকা। আর হাথুরুসিংহে। তবে এসব নিয়ে ভাবতে রাজি নন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। মাশরাফি বলেন, ‘ পেশাদার ক্রিকেটে এই ধরনের ঘটনা এটাই প্রথম না। সম্প্রতি যে কোচ ছিল তার মুখোমুখি হওয়া এই প্রথম না। আর সত্যি বলতে, আমরা এটা অনেক আগেই পেছনে ফেলে এসেছি। যখন তিনি চলে গেছেন তার পরিকল্পনা আমরা পুরোটাই ভুলে গেছি। এখন যারা  কোচ আছেন, তাদের সাথে আমরা মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। এখানে তার ব্যাপারটা নিয়ে আর ভাবার কোন অবকাশই নেই।’তারপরও হাথুরুসিংহের প্রসঙ্গ চলে আসায় বাড়তি চাপ পড়ছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের এ ম্যাচ খেলতে হবে, জিততে হবে। এর বাইওে অন্য কিছু  চিন্তা করার  সুযোগ নেই।  চিন্তা করলে আরও বেশি চাপ আসে। আমার কাছে মনে হয় খেলার দিকেই সবার মনোযোগ থাকে। সটাই আছে। আমাদের লক্ষ্য ভালো ক্রিকেট খেলা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে যেভাবে  খেলেছি, সেভাবেই খেলতে চাই। হাথুরুসিংহে থাকতেও এখানে এসে বলতাম আমরা আত্মবিশ্বাস ও স্বাধীনতা নিয়ে ক্রিকেট খেলতে চাই। আপনি যদি দেখেন প্রায় তিন-আড়াই বছর পর বিজয় দলে এসে যেভাবে ক্রিকেট খেলেছে, আমরা ঠিক এটাই চাই। ভয়হীন ক্রিকেট খেলুক।’ শ্রীলংকার বিপক্ষে পেসারদেরই সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জ নিতে হবে বলে মনে করেন মাশরাফি। মাশরাফি বলেন, ‘দুটি ম্যাচ খেলা হয়েছে আলাদা উইকেটে। আমরা জিম্বাবুয়ে-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের মতো উইকেট এই ম্যাচেও পারি। সেক্ষেত্রে বোলারদের জন্য চ্যালেঞ্জ একটু বেশি থাকবে।’ আমি আগেও বলেছিলাম, আমরা যেসব ম্যাচ জিতেছি পেসাররা অসাধারণ ভূমিকা রেখেছে। আবার অনেক ম্যাচ হেরেছি যেখানে পেস বোলাররা কিছুই করতে পারেনি। আমরা চেষ্টা করছি কিভাবে আরও ধারাবাহিক হওয়া যায়।’ মাশরাফি অবশ্য উইকেট নিয়ে পড়ে থাকতে চান না। পরিকল্পনা অনুযায়ী পারফর্ম করতে চান মাঠে। তিনি বলেন, ‘ভালো উইকেট হলেই যে ব্যাটসম্যানরা সহজে রান কওে ফেলবে, ব্যাপারটা তেমন নয়। পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। শেষ ম্যাচে তামিম রান করেছে। সাকিব-এনামুল ভালো শুরু করেছিল, মুশফিক তো নটআউট ছিল। টপ অর্ডারে হিসাব করে খেলতে পারলে আমাদের বড় ইনিংস খেলার সামর্থ্য আছে।’ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বড় জয় পাওয়ার পর দলের কম্বিনেশন খুঁজে পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন মাশরাফি, ‘কম্বিনেশনটা খুব গুরুত্বপূর্ণ, যেটা দক্ষিণ আফ্রিকায় মিসিং ছিল। এখানে প্রথম ম্যাচে সেটা আমরা করতে পেরেছি। চেষ্টা করব ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ