বুধবার ০৩ জুন ২০২০
Online Edition

সারাদেশে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২ দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালিত

ভূঞাপুর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কর্মবিরতি পালন করছেন

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা: কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে চুয়াডাঙ্গার জেলার ৪ টি পৌরসভায় দুইদিন ব্যাপি কর্মবিরতির প্রথমদিন কর্মবিরতি পালন করেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। সোমবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এবং মঙ্গলবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ কর্মবিরতি চলে। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা ও পেনশন এর দাবীতে তারা এ কর্মবিরতি করছেন চুয়াডাঙ্গা, আলমডাঙ্গা, দর্শনা ও জীবননগর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। চুয়াডাঙ্গা জেলা পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদক জানান, রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে বেতন-ভাতা ও পেনশন সহ অন্যান্য সুবিধা প্রদানের দাবীতে বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বানে কর্মবিরতি পালন করেন পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। এ কর্মবিরতি চলাকালে পৌরসভার সমস্ত নাগরিক সেবা প্রদান থেকে বিরত রয়েছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।  তিনি আরও বলেন, পৌরসভায় রাত-দিন পরিশ্রম করার পরেও দীর্ঘ ১৩ মাস বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে তাদের। পরিবার-পরিজন নিয়ে অধিকাংশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পড়েছেন বিপাকে। এ চিত্র শুধু চুয়াডাঙ্গার ৪ টি পৌরসভার কর্মচারী-কর্মকর্তাদেরই নয়। সারাদেশের ৩২৮ টি পৌরসভার অধিকাংশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবস্থা একই রকম। এসময় পৌরসভার সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
এসময় পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে পৌরসভা থেকে প্রাপ্ত নাগরিক সেবা নিতে আসা জনগণকে পড়তে হয়েছে ভোগান্তিতে।
মানিকগঞ্জ
সারা দেশের মত মানিকগঞ্জে পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে পেনশন সহ বেতন-ভাতাদি ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবিতে দুই দিন ব্যাপি কর্মবিরতি পালন করছেন।
সোমবার সকাল ৬ টা থেকে মানিকগঞ্জ পৌরসভার সার্ভিস এসোসিয়েশন এর আয়োজনে, শুধমাত্র পানি সরবরাহ ব্যতিরেকে অন্যান্য সকল সেবা পূর্ণ দিবস বন্ধসহ পৌরসভার সামনে কর্মবিরতি পালন করছেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, পৌরসভার সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দরা।
লালমনিরহাট
লালমনিরহাট পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করেছে। বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশন জেলা শাখার ব্যানারে পৌরসভা চত্বরে সোমবার  থেকে দুইদিন ব্যাপী পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালনকালে বক্তারা বিভিন্ন দাবী তুলে ধরে। পৌরসভা সার্ভিস এ্যসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও লালমনিরহাট জেলা শাখার সভাপতি শফিকুল ইসলাম পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে কর্মবিরতীতে একাত্মতা ঘোষণা করে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম রিন্টু, কাউন্সিলর আবু জায়েদ ভট্টু। এতে অন্যান্যের মধ্যে এ্যাসোসিয়েশনের জেলা কমিটির সাধারন সম্পাদক আখতারুজ্জামান, পৌর সচিব আসাদুজ্জামান, পৌর সভার ইঞ্জিনিয়ার ফজলুল হক, প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
নীলফামারী
সোমবার সকালে নীলফামারী পৌরসভার প্রায় দেড়শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী পৌর ভবনের সামনে অবস্থান নিলে পৌরসভার সার্বিক কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। অনেক নাগরিককে পৌর সভায় এসে ফিরে যেতে দেখা যায়। একই অবস্থা দাড়ায় জেলার সৈয়দপুর, ডোমার ও জলঢাকা পৌরসভাতেও। কর্মচারীদের টানা কর্মবিরতির ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েন পৌর সভায় নাগরিক সুবিধা নিতে আশা নাগরিকগণ। কর্মবিরতির সময় নীলফামারী পৌর সভার সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফ রেজা, আহসানুল কবির, এবিএম মোস্তফা, দুদু মিয়া, ফরিদ আহমেদ প্রমুখ।
গফরগাঁও (ময়মনসিংহ)
বেতন-ভাতা ও পেনশনসহ যাবতীয় সুবিধা সরকারের রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে প্রাপ্তির লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল সোমবার গফরগাঁও পৌর সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত পূর্র্ণদিবস কর্মবিরতি পালন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গফরগাঁও পৌর সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাসুদ রানা’র পরিচালনায় পূর্ণদিবস কর্মবিরতি চলাকালে পৌরসভায় চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পৌর সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রিয় মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ইশরাত জাহান সুইটি, পৌর সচিব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আতাউর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী মুহাম্মদ সানোয়ার হোসেন প্রমুখ।
ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল)
ভূঞাপুর পৌর সভার কর্মকর্তা কর্মচারী এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ১৫ ও ১৬ জানুয়ারী ২ দিনের কর্ম বিরতি পালন করছে পৌর কর্মকর্তা কর্মচারীরা। সকাল ১০টা থেকে শুরু করে বিকেল ৫টা পর্যন্ত তারা সকল কাজকর্ম বন্ধ রেখে পৌর ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। এসময় ভূঞাপুর পৌর সভার  মেয়র মোঃ মাসুদুল হক মাসুদ ও প্যানেল মেয়র পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তারসহ অন্যান্য কাউন্সিলরগণ উপস্থিত হয়ে অবস্থানকারীদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন। কর্ম বিরতিতে  উপস্থিত ছিলেন ভূঞাপুর পৌর সভা  কর্মকর্তা কর্মচারী এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ আতিকুল ইসলাম, টাঙ্গাইল জেলা সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহজাহান, পৌর সভার প্রধান সহকারী মোঃ আব্দুল আজিজ, এসোসিয়েশন ভূঞাপুর শাখার কার্যকরী সদস্য মোঃ শহিদুল ইসলাম।
কর্মসুচীর অংশ হিসেবে রাতে ষ্ট্রিট লাইট বন্ধ করে দেয়া হয়।
ফুলবাড়ী (দিনাজপুর)
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীরা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে পেনশন সহ বেতন ভাতাদি ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা প্রদানের দাবিতে সারাদেশের ন্যায় ৩২৭টি পৌরসভা একযোগে ২দিন পানি সরবরাহ ব্যতি রেখে সকল সেবা বন্ধসহ পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেন। গত ১৫ই জানুয়ারি সকাল ৬টা থেকে ১৬ জানুয়ারি মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেন। ফুলবাড়ী পৌরসভা কর্মচারী সংসদের সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রশিদ এর নেতৃত্বে সারাদেশের ন্যায় ফুলবাড়ী পৌরসভা কর্মচারী সংসদের আওতায় সকল কর্মকর্তা কর্মচারী পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পৌরচত্বরে পালন করেন।
কাহালু (বগুড়া)
কেন্দ্রীয় কর্মসুচি অংশ হিসেবে কাহালু পৌর সভার কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন কাহালু শাখার উদ্যোগে গত সোমবার কাহালু পৌরসভা চত্বরে ২দিনের পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতি কর্মসূচি পালিত হয়। পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন কাহালু শাখার সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌর কর্মচারী-কর্মকর্তা কাহালু শাখার সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ হারুন,সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল ইসলাম,সদস্য মিজানুর রহমান,মোসাদ্দেক হোসেন,সুরুজ,সুফি কামাল, জাকিয়া, মিলি, সাফিয়া, সোবহান প্রমুখ।
রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর)
দেশব্যাপি পৌর কর্মচারী পরিষদের উদ্যোগে দুই দিন ব্যপি কর্মবিরতির অংশ হিসাবে বিভিন্ন দাবীর প্রেক্ষিতে রামগঞ্জ পৌর কর্মচারী পরিষদের উদ্যোগে সোমবার সকাল থেকে দাবী আদায়ের লক্ষে কর্মবিরতি পালন করছেন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দুইদিনব্যপি এ কর্মসূচি পালন করেন বলে জানালেন কর্মকর্তা ও কর্মচারিগণ।
এসময় পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ পৌর ভবন চত্বরে বিভিন্ন দাবীর প্রেক্ষিতে প্রতিবাদ সমাবেশ করেন।
সিংড়া (নাটোর)
রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা ও পেনশন সহ অন্যান্য সুবিধা প্রদানের দাবিতে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েন কেন্দ্রীয় শাখার আহবানে সোমবার পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেছে সিংড়া পৌরসভাস সার্ভিস এসোসিয়েশন।
সকালে পৌরসভার সামনে একত্রিত হয় সিংড়া পৌরসভাস সার্ভিস এসোসিয়েশন এর নেতৃবৃন্দ। এসময় সিংড়া পৌরসভাস সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি জিল্লুর রহমান এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস। তিনি সিংড়া পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশনের দাবীর প্রতি সহমত পোষণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ