মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ভারতে প্রতি ঘণ্টায় একজন স্কুল শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করে

৯ জানুয়ারি, টাইমস অব ইন্ডিয়া : ভারতে প্রতি ঘণ্টায় একজন স্কুল শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করে বলে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে প্রকাশিত পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে। ইংরেজি দৈনিক গত সোমবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা এতটাই বেড়ে গেছে যে, ভারতের সবগুলো রাজ্যের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে অভিভাবকদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সর্বশেষ যে পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে, মাদকদ্রব্য ব্যবহার, পিতা-মাতার বিচ্ছেদের কারণে সৃষ্ট হতাশা, সমবয়সীদের সঙ্গে মারামারি, প্রেমঘটিত সমস্যা এবং পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পারার কারণে শিক্ষার্থীরা আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। 

ভারতে শুধুমাত্র ২০১৬ সালে ৯,৫০০ স্কুল শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে যা প্রমাণ করে দেশটিতে প্রতি ঘণ্টায় একজন শিক্ষার্থী নিজের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে। এই পরিসংখ্যানে শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার দিক দিয়ে শীর্ষে থাকা দু’টি রাজ্যের নাম হিসেবে মহারাষ্ট্র ও পশ্চিমবঙ্গের কথা বলা হয়েছে।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতের সামাজিক কাঠামোয় অস্বাভাবিক গতিতে পরিবর্তনের জের ধরে কিশোর বয়সীরা অভিভাবকদের সঙ্গে ঠিকমতো সম্পর্ক স্থাপন করতে না পারার কারণে আত্মহত্যার দিকে ধাবিত হচ্ছে। 

 

তাদের মতে, মানসিক সমস্যার চেয়ে সামাজিক সমস্যার কারণে ভারতের কিশোর-কিশোরীরা আত্মহত্যার পথে বেশি পা বাড়াচ্ছে।সার্বিকভাবে ভারতে কিশোর ও যুবশ্রেণির মধ্যেও আত্মহত্যার প্রবণতা বিশ্বের অন্য যেকোনো দেশের তুলনায় বেশি। দেশটিতে প্রতি এক লাখ যুবক-যুবতীর মধ্যে ৩৫ জন আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ