বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

সুন্দরগঞ্জে বিনামূল্যের পাঠ্যবই কালো বাজারে বিক্রি ॥ মামলার চূড়ান্ত চার্জসীট দাখিল

গাইবান্ধা সংবাদদাতা : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় বিনামূল্যে বিতরণের জন্য সরকারি পাঠ্যবই কালোবাজারে বিক্রি মামলার চূড়ান্ত চার্জ সীট দাখিল করেছে পুলিশ। পাঠ্যবইকে সাদা কাগজ দেখিয়ে চুড়ান্ত চার্জসীট দাখিল নিয়ে এলাকায় চলছে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা। অনেকের ধারণা প্রভাবশালী সভাপতির কারণে পুলিশ চূড়ান্ত চার্জ সীট প্রদানে বাধ্য হয়েছে।
উপজেলার শিবরাম আলহাজ্ব মো: হোসেন স্মৃতি স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন বিনামূল্যে বিতরণের জন্য সরকারি পাঠ্যবই গত বছরের ৫ জুলাই কালোবাজারে বিক্রি করার সময় স্থানীয় জনতা হাতে নাতে আটক করে প্রশাসনকে খবর দেয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম গোলাম কিবরিয়ার নির্দেশে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহমুদ হোসেন মন্ডল ও  থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে জনতার হাতে আটক পাঠ্যবই জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে।  পরে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বিক্রিত পাঠ্যবইয়ে জব্দ তালিকা তৈরি করে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন এবং ক্রেতা আক্কাস আলীকে আসামি করে থানায় মামলা করে। দীর্ঘদিন পর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই ইজার আলী আদালতে চূড়ান্ত চার্জসীট দাখিল করে। কিন্তু পুলিশ কিভাবে চূড়ান্ত চার্জসীট দাখিল করেন তা নিয়ে অনেকের মাঝে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ রয়েছে,কলেজের স্টোরে জমা রাখা ২০১৭ সালের ৬ষ্ঠ শ্রেণি হতে নবম শ্রেণি পর্যন্ত বিভিন্ন বিষয়ের নতুন ১০৬টি এবং ২০১৬ সালের ৬ষ্ঠ শ্রেণি হতে নবম শ্রেণির ব্যবহৃত পুরাতন ৩ হাজার ৮৫০টি পাঠ্যপুস্তক কালো বাজারে বিক্রি করে। পাঠ্যপুস্তকগুলো অটোভ্যান যোগে ক্রেতা আক্কাস আলী নিয়ে যাওয়ার সময় জনতা তা আটক করে। সকল পাঠ্যপুস্তকে “জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, ঢাকা বাংলাদেশ এবং ২০১০ শিক্ষাবর্ষ থেকে সরকারি কর্তৃক বিনামূল্যে বিতরণের জন্য” লেখা রয়েছে। অথচ পুলিশ সমস্ত পাঠ্য বইকে সাদা কাগজ দেখিয়ে চার্জ সীট দাখিল করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ