শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

রাজধানীতে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে ছাত্রলীগের ১০ কর্মী দগ্ধ ॥ ঢামেকে ভর্তি

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ফার্মগেটে ক্ষমতাসীন ছাত্রলীগের কর্মীদের বহনকারী একটি বাসে আগুন লেগে অন্তত ১০ জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের দগ্ধ কর্মী জানান, পশ্চিম থানা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি বিপুলের নেতৃত্বে তারা শাহবাগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালিতে যাচ্ছিলেন। দুটি বাসভর্তি নেতাকর্মী ছিলেন।
তার ভাষ্যে, ফার্মগেইটে পৌঁছলে হঠাৎ করে বিকট শব্দ হয়। প্রথমে তারা কিছুই বুঝতে পারেননি। পরে দেখেন বাসের ভেতরে আগুন জ্বলছে। এরপর তাড়াহুড়ো করে তিনিসহ সবাই নেমে পড়েন। রাস্তার পাশের চায়ের দোকানে থাকা জারের পানি ঢেলে আগুন নেভানো হয়।
ওই ছাত্রলীগ কর্মী বলেন, আগুনে বাসের চেয়ারগুলো পুড়ে গেছে। জ্যাকেটের জন্য আমিসহ অনেকে বেঁচে গেছি। তবে শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে।
ছাত্রলীগের কর্মসূচি পন্ড করার জন্য পরিকল্পিতিভাবে কেউ এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলেও অভিযোগ ঢাকা বিজনেস ইনস্টিটিউটের এই ছাত্রের। তবে নিজের নাম বলেননি তিনি।
জানা গেছে, ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শাহবাগে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ র‌্যালির আয়োজন করে। সেখানে যোগ দিতে উত্তরা থেকে রাইদা পরিবহনের দুটি বাসে ছাত্রলীগ কর্মীরা রওনা দেন। ফার্মগেইটে আসার পরই একটি বাসের ভেতরে তাদের হাতে থাকা বেলুনের গ্যাস থেকে আগুন ধরে যায়। এতে রিফাত, রাইহান, মেহেদী, কাব্য, রওশন, সৌরভ, আকাশ ও রানা নামের আট ছাত্রলীগ কর্মী দগ্ধ হন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই বাবুল জানান, আহতরা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত।
 তেজগাঁও থানার ওসি মাজহার হোসেন বলেন, “একটি রিজার্ভ বাসে গ্যাস বেলুন নিয়ে কয়েকজন উঠেছিল। তারা কোনো একটি অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল। ফার্মগেইটে বাসের মধ্যে কোনো এক যাত্রী সিগারেট ধরালে বেলুন বিস্ফোরণ হয়।” এতে চারজন আহত হয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা মাজহার। আহত চারজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া। ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এই র‌্যালির আয়োজন করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ