বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মার্চেই ছাত্রলীগের সম্মেলন দেখতে চান শেখ হাসিনা -ওবায়দুল কাদের

গতকাল শনিবার অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী র‌্যালি উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাধীনতার মাস মার্চেই ছাত্রলীগের সম্মেলন দেখতে চান আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এই কথা জানিয়েছেন।
ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল  শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি জানান, নেত্রী আগামী মার্চ মাসে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলন করার নির্দেশ দিয়েছেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন এর সঞ্চালনায় এবং সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও এর সাবেক নেতারা।
এদিকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী  উপলক্ষে রাজধানীতে র‌্যালি বের করে ছাত্রলীগ। ঢাবি থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি ছাত্রলীগকে একটি সুখবর দিতে চাই। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সম্মেলনের বিষয়ে আমি নেত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার পরামর্শে ও নির্দেশে ছাত্রলীগকে বলতে চাই আপনারা অবিলম্বে নির্বাহী কমিটির সভা ডেকে জাতীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি নিন। আগামী মার্চে স্বাধীনতার মাসে সম্মেলন করুন। আপনারাই সিদ্ধান্ত নিন মার্চের কত তারিখ  সম্মেলন করবেন।’
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এবার ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালি ৪ তারিখের পরিবর্তে ৬ তারিখ করা হয়েছে। আমি ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ দিতে চাই, তারা জনগণের দুর্ভোগ ও ভোগান্তির কথা চিন্তা করে ছুটির দিনে শোভাযাত্রা আয়োজন করেছে।
তিনি বলেন, ‘দেশে এখন নেতাকর্মীর অভাব নেই। শুধু নেতাকর্মীর সংখ্যা বাড়ালেই হবে না, যোগ্যতাসম্পন্ন নেতাকর্মীর প্রয়োজন।’
তিনি আরও বলেন, ‘দেশে এখন মাদকের ছড়াছড়ি। ছাত্রলীগকে মাদক বন্ধের জন্য কাজ করতে হবে।’
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তোমরা শিগগিরই কার্যনির্বাহী সভা ডেকে সম্মেলনের তারিখ নির্দিষ্ট করো। আমরা তো তোমাদের সম্মেলনের তারিখ ঠিক করে দিতে পারি না। তোমরাই তোমাদের তারিখ ঠিক করো। তোমরা যদি দেরি করো তাহলে আওয়ামী লীগে তোমরা জুনিয়র হয়ে পড়বে।’
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছাত্রলীগের আজকের এই সমাবেশ থেকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন সাম্প্রদায়িক জোটকে প্রতিহত করার যাত্রা শুরু হল।
ছাত্রলীগ নেতাদের লেখাপড়ার পাশাপাশি সমাজসেবামূলক কাজে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, গুটিকয়েক নেতার কারণে ছাত্রলীগ এবং সরকারের সুনামকে বাধাগ্রস্ত হতে দেয়া যাবে না। বিশৃঙ্খলা করলে প্রশাসনিক ও আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। বক্তব্যে আগামী মার্চে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন করার আহ্বান জানান তিনি।
ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হয়েছে ছয়মাস আগেই। সম্মেলনের দাবিতে সম্ভাব্য পদপ্রার্থী নেতারা কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। দেখা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গেও। ওবায়দুল কাদেরসহ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সম্মেলনের আশ্বাস দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ