শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

আমেরিকা ফেরত পাঠাবে ৭৫ হাজার ভারতীয়!

যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ভারতীয় বাসিন্দারা

৩ জানুয়ারি, টাইমস অব ইন্ডিয়া : ‘Buy American, Hire American’ নীতি মেনে ভিসা শর্তাবলীতে সাম্প্রতিক রদবদলের জেরে আমেরিকা থেকে চাকরি হারাতে পারেন ৭৫ হাজার ভারতীয়।

সম্প্রতি ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি-তে জমা পড়া একটি মেমোর প্রস্তাবের প্রধান লক্ষ্য হল, গ্রিন কার্ডের জন্য বিদেশি কর্মীরা আবেদন করলে তাঁরা এইচ-১বি ভিসা আর রাখতে পারবেন না।

 ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের এই প্রস্তাবটি কার্যকর করা হলে হাজার হাজার ভারতীয় কর্মী, যাদের এক বড় অংশ তথ্য প্রযুক্তি বিভাগে কর্মরত, তাদের এইচ-১বি ভিসার মেয়াদ বাড়াতে পারবেন না যে হেতু গ্রিন কার্ড-এর জন্য তাদের আবেদন তখনও বিবেচলাধীন থাকবে।

আমেরিকায় স্থায়ী বসবাস করতে হলে গ্রিন কার্ড আবশ্যক। পুরনো নিয়ম অনুযায়ী, গ্রিন কার্ডের জন্য আবেদন জানালে সাধারণত এইচ-১বি ভিসার মেয়াদ বাড়িয়ে দেয় মার্কিন প্রশাসন।

সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, আমেরিকায় পাকাপাকি বসবাসের জন্য দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে ভারতীয়রাই। তার পিছনেই রয়েছেন চিনের নাগরিকরা। নতুন আইন পাশ হলে এক ধাক্কায় ৫০,০০০-৭৫,০০০ ভারতীয়কে দেশে ফেরত পাঠাবে আমেরিকার প্রশাসন। মার্কিন নাগরিকদের কর্মসংস্থানে সুরক্ষা এবং উন্নয়নের স্বার্থে প্রস্তাবিত নয়া আইন মেনেই এইচ-১বি ভিসা অপব্যবহার রুখতে কড়া পদক্ষেপ করতে চলেছে ওয়াশিংটন। ভিসা নির্ভর সংস্থার সংজ্ঞায় আরও কাটছাঁট এবং ন্যূনতম বেতনসীমা ও কর্মদক্ষতা অনুসারে নতুন শর্তাবলী আরোপ করা হয়েছে। ন্যূনতম বেতনসীমা বাড়ানোর পাশাপাশি নিয়োগকারী সংস্থাগুলিকে চাপ দেয়া হচ্ছে যাতে ৫-৬ বছরের বেশি ভিনদেশী কর্মীদের তারা আমেরিকায় না রাখে। প্রতি বছর ৮৫,০০০ অনভিবাসী এইচ-১বি ভিসা মঞ্জুর করে আমেরিকা। এর মধ্যে ৬৫,০০০ ভিসা মঞ্জুর করা হয় ভিনদেশি কর্মীদের জন্য এবং ২০,০০০ ভিসা অনুমোদন করা হয় মার্কিন স্কুল-কলেজে উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য আবেদনকারী ভিনদেশি ছাত্রছাত্রীদের জন্য। আবার তার মধ্যে ৭০% ভিসা-ই পেয়ে থাকেন ভারতীয়রা, যাদের তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাগুলি নিয়োগ করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ