রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

রাজনৈতিক হত্যাকান্ড ২০১৭

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : [তিন]
(১৪) ১৩ সেপ্টেম্বর সিলেট মহানগরীর শিবগঞ্জ লামাপাড়ায় ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে জাকারিয়া মোহাম্মদ মাসুম নামে এক কর্মী ছুরিকাঘাতে নিহত হয়। গত ১২ সেপ্টেম্বর মাসুম অপর ছাত্রলীগ কর্মী আলী আহমেদ মাহিনকে মারধর করে ফলে মাহিন ও তার সহযোগীরা এই ঘটনা ঘটে, (১৫) ২৭ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ সদরের বালুঘাটে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জেরে ছাত্রলীগ জেলা কমিটির নেতা মামুনুর রশীদ শাওনকে কুপিয়ে হাত-পা ও গলা কেটে হত্যা করে অপর ছাত্রলীগ কর্মী হৃদয় হোসেন ও তার পিতা কৃষক লীগ নেতা মোস্তাক আহমেদ, (১৬) ২ অক্টোবর কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ইভটিজিং-এ বাধা দেয়ার ছাত্রলীগ জগন্নাথদিঘী ইউনিয়ন সহ-সভাপতি আতিকুল ইসলাম আজাদ, মোতালেব হোসেন, ইয়াসিন, ছালেহ আহমেদ ও সবুজ মেয়েদের ইভটিজিং করছিল। এ কাজে বাধা দেয়ায় জগন্নাথদিঘী ইউনিয়ন যুবলীগ স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান তাদের হাতে আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। গত ২৯ সেপ্টেম্বর আজাদগং-দের হাতে হাবিব আহত হয়, (১৭) ১৩ অক্টোবর খুলনা শহরে সরকারী করোনেশন বালিকা বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী শামসুন নাহার চাঁদনী (১৩)-কে বটিয়াঘাটর জলমা ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী মাফিয়া কবীরের ক্যাডার ও ছাত্রলীগ খুলনা পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউট কর্মী শামীম হাওলাদার শুভ ও তার সহযোগী নির্যাতন করায় শামচুন নাহার চাঁদনী আত্মহত্যা করে। পুলিশ ৫ ডিসেম্বর মাফিয়া কবীর, শামীম হাওলাদার শুভ, হাসিব ও জাকিয়া বেগমের নামে আদালতে চার্জসীট দাখিল করে, (১৮) ২৭ অক্টোবর খুলনার দাকোপ উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক স্বর্ণদ্বীপ জোয়াদ্দার ও তার সহযোগী অভিজিত অভি বাজুয়া এসএন ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী বন্যা রায়কে হত্যায় প্ররোচনা দেয়ায় তাদের নামে মামলা করে মেয়ের পিতা, (১৯) ৬ অক্টোবর চট্টগ্রামের সদরঘাট এলাকায় ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে মহানগর সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাস নামে একজন খুন হয়। (২০) ১৬ অক্টোবর সিলেট মহানগরীর টিলাগড় এলাকায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ওমর ফারুক মিয়াদ নামে এক কর্মী খুন হয়। নিহত ওমর ফারুক জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হীরণ মাহমুদ গ্রুপের সদস্য, (২১) ৫ নবেম্বর খুলনার দাকোপে ছাত্রলীগ বাজুয়া এসএন ডিগ্রী কলেজ সভাপতি ইনজামামুল হক লাউডোবা সরকারী এলবিকে ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী জয়ী মল্লিককে লাঞ্ছিত করায় জয়ী আত্মহত্যা করে। পরে জয়ীর বাবা ইনজামামের বিরুদ্ধে হত্যায় প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে মামলা করে, (২২) ১৯ নবেম্বর কুমিল্লা শহরে নতুন চৌধূরী পাড়ার এক ফ্লাটে মাসুদুর রহমান নামে একজন খুন হওয়া মামলায় কাপ্তান বাজার এলাকার সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মাহমুদুল হাসান মান্না ও তার সহযোগী জসিম উদ্দিনকে আটক করে পুলিশ। আটক হওয়া ব্যক্তিরা ঘটনার সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে, (২৩) ৭ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার সদরে ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে শাহ্বাব রহমান ও (২৪) মাহি আহমেদকে কুপিয়ে হত্যা করা হয় এবং (২৫) ১৬ ডিসেম্বর সুনামগঞ্জ দিরাই পৌর শহরের মাদানী মহল্লায় দিরাই উচ্চবিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী হুমায়রা আক্তার মুন্নী হত্যায় ছাত্রলীগ কর্মী ইয়াহিয়া ও তানভীরসহ ৫-৬ জনের নামে মামলা দায়ের হয়।
যুব লীগ : (১) ১১ জানুয়ারি গাজীপুরের কালীগঞ্জে নিজ স্ত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা নাসিমা আক্তারকে হত্যার দায়ে নাগরী ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি সফিকুল ইসলাম মাসুদ আকন্দের নামে মামলা করে নিহতের প্রথম ঘরের মেয়ে তানজিনা আক্তার। উল্লেখ্য, নাগরী ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মেম্বার থাকা কালে মাসুদের সাথে পরিচয়, সম্পর্ক ও পরে বিয়ে হয়। ২০১৬ সালের ৮ নবেম্বর মাসুদের বাড়িতে পিঠা উৎসবের সময় নাসিমা নিখোঁজ হয়। এই মামলায় মাসুমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রাজনৈদিক সংশ্লিষ্টতা বিলম্বে প্রকাশ হওয়ায় ঘটনাটি ২০১৭ সালে প্রকাশ হলো, (২) ৩ ফেব্রুয়ারি খুলনা জেলার ফুলতলায় বেজেরডাঙ্গা রেল স্টেশনের পাশে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে গুলী ও বোমা হামলায় ফুলতলা ইউনিয়ন যুবলীগ সহ-সভাপতি জনি মোল্লা খুন হয়। এ ঘটনায় উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এস.কে আলী ইয়াসিন নিহত জনিকে যুবলীগ নেতা দাবী করলেও উপজেলা সাধারণ সম্পাদক এস.এম শহীদুল্লাহ্্ প্রিন্স তাকে যুবলীগের কেউ হয় বলে দাবী করে, (৩) ৫ মার্চ বগুড়ার শিবগঞ্জে ৩৬৫ বিঘা সংসারদীঘির আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক প্রতিপক্ষের হাতে খুন হয়। যুবলীগ নেতা মোহেদুল ইসলাম আশিকের সাথে প্রতিপক্ষ এবং তৈয়ব আলীর নিকট থেকে ফিরোজ আহমেদ রিজুর সাথে দীঘি নিয়ে দ্বন্দ্বে এই হত্যাকান্ড ঘটে ও (৪) ২৪ মার্চ পিরোজপুরের নাজিরপুরে পশ্চিম বানিয়ারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সমীরণ মজুমদারকে হত্যা করা হয়। হত্যা মামলায় জড়িত খোকন শেখকে গ্রেফতার করলে সে ঘটনার সাথে জড়িত মর্মে স্বীকার করে এবং অন্য দু’জন দীপঙ্কর রায় ও মন্টু শেখের নাম বলে দেয়। তার দেয়া তথ্য মতে যুবলীগ উপজেলা কমিটির সদস্য দীপঙ্কর রায়কে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করলে দীপঙ্কর রায় আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয় এবং মামলার রহস্য উদঘাটন হয়।
 (৫) ১৮ মার্চ নওগাঁর রাণীনগরের ধনপাড়া গ্রামে যুবলীগ নেতা মনিরুল ইসলাম রনির বিরুদ্ধের তার স্ত্রী নিলুফার বেগমকে হত্যার অভিযোগ করে তার শশুরের পরিবার। এ দিন নিলুফারকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে স্বামী পালান দেয়, (৬) ২৪ এপ্রিল পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে পাড়েরহাট ইউনিয়নে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি রাসেল শেখ আহত হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হলে ২৫ এপ্রিল রাসেল মারা যায়। ঘটনায় পিরাজপুর পৌর যুবলীগ নেতা আবু সাঈদকে আটক করে পুলিশ, (৭) ২১ মে যশোর নতুন উপশহরে দলীয় কোন্দলে যুবলীগ কর্র্মী কাজলকে খুন করে প্রতিপক্ষ গ্রুপ বলে দলের একটি গ্রুপ দাবী করে। তারা দলীয় ঐ অংশের চিমা ও মুনসুরসহ তিন-চার জন খুনের সাথে জড়িত বলে অভিযোগ করেন, (৮) ২৪ মে ফেনীর ফুলগাজীর পূর্ব রশিকপুর গ্রামে বিবি ফাতেমা সাথীকে ধর্ষণে বাধা দেয়ায় তাকে ও (৯) তার পাঁচ বছরের মেয়ে ইশমা খুন করে সন্ত্রাসীরা। পুলিশ ও এলাকা বাসীর ধারনা যুবলীগ ফুলগাজী উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম রনি ও কাদের মিয়া এই ঘটনার সাথে জড়িত। পুলিশ তাদের দু’জনকে আটক করে ও (১০) ২ জুন রাঙ্গামাটির লংগদুতে যুবলীগ নেতা ও মটরবাইক চালক নূরুল ইসলাম নয়ন হত্যার প্রতিবাদে মানিকজোর ছড়ায় তিনটিলাসহ বেশ কয়েকটি গ্রামে আওয়ামী-ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলা ও অগ্নিসংযোগে গুনবালা চাকমা নামে এক মহিলা আগুনে পুড়ে মারা যায়।
 (১১) ৮ জুলাই খুলনা মহানগরীর আমতলা এলাকায় নর্থখাল রোডে যুবলীগের দলীয় কোন্দলে হারুনুর রশীদ সুমন নামে এক কর্মী খুন হয়। ঘটনার সাথে জড়িত যুবলীগ ক্যাডার শেখ সেলিম, তার শ্যালক জাহিদ হাসান রাসেল ও রাজু হালদারকে আটক করে পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ