বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

কালিয়াকৈরে বাড়ি ভাড়া নিয়ে জমির মালিকানা দাবি

কালিয়াকৈর সংবাদদাতা : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সাকাশ্বর এলাকায় একটি জমিতে থাকা বাড়ী ভাড়ায় নিয়ে বসবাস করার কয়েক বছর পর নিজেই ওই জমির মালিকানা দাবী করছেন একটি পরিবার। রেকডীয় মালিকের ভূয়া ওয়ারিশ দেখিয়ে ওই জমির ভাড়াটিয়ার নামে দলিল করে নিয়েছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এদিকে জমির মুল মালিককের দাবী ৫/৬ বছর আগে ওই জমিতে আজহার হোসেনকে তার পরিবার নিয়ে জন্য ভাড়া দেয়া হয়। হঠাৎ করে ওই জমি আজহারের স্ত্রী শাহিদা বেগমের নামে দুই মাস আগে রেকর্ডীয় মালিকের চাচাত ভাইকে মালিকানা সাজিয়ে দলিল করে নেয়।
জানা যায়, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সাকাশ্বর হরকুমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে আরএস ২১৪ খতিয়ানে ৫৫০ ও ৯৫৩ দাগে রেকডীয় মালিক সুধাংশু কুমার চন্দের ৩ ছেলের কাছ থেকে আঃ রহিম তার ৪ ভাই সহ ৫ জনে ১৯৭৪ সালে ক্রয়সুত্রে মালিক হয়ে ভোগ দখলে থাকে। ৫/৬ বছর আগে ওই জমির কেয়ারটেকার হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। আজহার ৩/৪ বছর আগে জমির মালিকের কাছ থেকে মৌখিকভামে ওই জমিতে থাকা ঘরবাড়ী ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে। গত দুই মাস আগে শাহিদা বেগম জমির ৮শতাংশ ক্রয় করেছে বলে দাবী করে।
এব্যাপারে জমির মালিকের পক্ষ থেকে গাজীপুর আদালতে একটি উচ্ছেদ মামলা করা হয়েছে।  আঃ রহিমের জামাতা মোঃ আলম মিয়া জানান,কয়েক বছর আগে আমি ওই জমিতে থাকা ঘরবাড়ী আজহারের কাছে ভাড়া দেই। দুই মাস আগে আজহারের স্ত্রী ওই জমি কিনে বলে দাবী করছে। আমরা বিষয়টি শুনতে পেয়ে অতভম্ব।
আজহারের স্ত্রী শাহিদা বেগম জানান,ওই জমিতে ৮/৯ বছর যাবৎ স্থানীয় ইমারত হোসেন সহায়তায় কেয়ারটেকার হিসেবে বসবাস করে আসছি। খুশি হয়ে জমির মালিক আমাকে ৮ শতাংশ জমি দুই মাস লিখে দিয়েছে।
এমারত হোসেন জানান, সুধাংশুর কোন ছেলে এই এলাকায় থাকেন না। হিন্দু আইনে ছেলে সন্তান না থাকলে ওই জমির মালিকানা হয়। নিকট আতœীয়রা মালিক হয় । তাই আমরা চাচাত ভাইয়ের কাছ থেকে কিনে নিয়েছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ