শুক্রবার ০৭ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মিয়ানমারে রয়টার্স সাংবাদিকরা আরও ১৪ দিনের রিমান্ডে

মিয়ানমারে আটক রয়টার্সের সাংবাদিক

 

২৭ ডিসেম্বর, রয়টার্স : মিয়ানমারে উপনিবেশিক আমলের দাফতরিক গোপনীয়তা আইনের মামলায় গ্রেফতার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে আরও ১৪ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার তাদেরকে আদালতে হাজির করার পর এ রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। তাদের আইনজীবীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এসব তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, আদালতে হাজিরের সময় গ্রেফতার সাংবাদিক ওয়া লোন ও কিয়াও সোয়ি উ’কে পরিবার ও আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়। ১২ ডিসেম্বর আটকের পর প্রথমবারের মতো তাদের এ সুযোগ দেওয়া হল। তবে আদালতে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

ইয়াঙ্গুনের পুলিশ দফতর থেকে তাদের আটক করা হয়েছে জানিয়ে ওয়া লোন বলেন, ‘পরিস্থিতি ঠিক আছে। আমরা সর্বোচ্চভাবে এটার মোকাবিলা করব কারণ আমরা কোনও ভুল করিনি। সংবাদমাধ্যমের আইন ও নৈতিকতা ভঙ্গ করিনি। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাব।’

দুই সাংবাদিককে দেখতে ইয়াঙ্গুনের উত্তরের জেলার ওই আদালত ভবনের বাইরে অনেক প্রতিবেদক ও ক্যামেরাম্যান উপস্থিত হয়েছিলেন। পুলিশের প্রিজন ভ্যানের পরিবর্তে একটি সাদা ভ্যানে করে তাদের আনা হয়। তাদের শরীরে স্বাভাবিক পোশাক ছিল। কোনও হাতকড়াও পরানো হয়নি।

তাদের পক্ষে রয়টার্সের নিয়োগকৃত আইনজীবী থান জাউ অং বলেন, তারা দু’জন সাংবাদিক হিসেবে শুধু নিজেদের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘সংবাদমাধ্যম হিসেবে কাজ করার সময় তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছে।’

পুলিশ ও সরকারি আইনজীবীর বাইরে দুই সাংবাদিকের পরিবার ও তাদের আইনজীবী ছাড়া আর কাউকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সামরিক অভিযানের মুখে সাড়ে ৬ লাখের বেশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী বাংলাদেশে পালিয়ে আসার ঘটনা কাভার করেছেন রয়টার্সের ওই দুই সাংবাদিক। তাদের দাফতরিক গোপনীয়তা আইনের মামলায় গ্রেফতার করা হয়। এতে তাদের ১৪ বছর পর্যন্ত কারাদ- হতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ