বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

গোদাগাড়ীতে ধর্ষণ  মামলায় কলেজছাত্র  জেলহাজতে

 

রাজশাহী অফিস: রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সিফাত আলী (১৭) নামে এক কলেজছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে বিকেলেই আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

সিফাত উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের মাছমারা ভাজনপুর পাঠানপাড়া গ্রামের হারুন-অর-রশিদের ছেলে।

এর আগে দুপুরে প্রতিবেশী ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে গোদাগাড়ী থানায় সিফাত আলীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। গোদাগাড়ী থানার জানায়, গত শনিবার ১০ বছরের ওই কিশোরী বাড়িতে একাই ছিলো। এ সময় সিফাত ওই কিশোরীর কক্ষে ঢুকে তাকে জোর করে ধর্ষণ করে। পরে প্রতিবেশীরা বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই বাড়িতে যায়। তবে প্রতিবেশীরা আসার আগেই সিফাত বাড়ি ছেড়ে কৌশলে সটকে পড়ে। 

ওই রাতেই কিশোরীকে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠিয়ে দেন। 

এরপর থেকে ওই কিশোরী সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে। সিফাতকে গ্রেফতার করার পর বিকেলেই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া হাসপাতালের ওসিসিতে ওই কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।

কিছুটা সুস্থ হলে আদালতে নিয়ে তার জবানবন্দী রেকর্ড করা হবে বলেও পুলিশ জানায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ