বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

সমুদ্রের অফুরন্ত সম্পদ ব্যবহার করে দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখা সম্ভব

 

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস এন্ড ফিশারিজ (আইএমএসএফ) এবং আইইউসিএন বাংলাদেশ (IUCN Bangladesh) এর যৌথ উদ্যোগে চট্টগ্রাম শহরের হোটেল লর্ডস ইন-এ ‘Integrated Coastal Management (ICM) Course in Bangladesh for Capacity Development under Mangroves For the Future Project’’ শীর্ষক একটি ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে সমন্বিত উপকূল ব্যবস্থাপনা বিষয়ে প্রশিক্ষণের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সম্প্রতি সমাপ্ত একটি গবেষণা কর্মের ফলাফল উপস্থাপন করা হয়। উক্ত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। 

চ.বি. ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস এন্ড ফিশারিজ-এর পরিচালক মো. জাহেদুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইইউসিএন বাংলাদেশের কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ   ইশতিয়াক উদ্দিন আহমেদ। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বন বিভাগের উপ প্রধান বন সংরক্ষক  জহির উদ্দিন আহমেদ। 

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ‘ম্যানগ্রোভ ফর ফিউচার’ এর ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেটর   শাহেদ মাহবুব চৌধুরী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইএমএসএফ এর শিক্ষক  ফয়েজ মো. তাউমুর।

উপাচার্য বলেন, সমুদ্রে রয়েছে অফুরন্ত সম্পদ। এ সম্পদ সুরক্ষা, আহরণ এবং যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের উন্নতি ও অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান ও ভূমিকা রাখা সম্ভব। তিনি বলেন, এ জন্য আমাদের সমুদ্র গবেষকদের হতে হবে অনুসন্ধানী এবং সরকারী ও বেসরকারী পৃষ্ঠপোষকতায় গ্রহণ করতে হবে যুগোপযোগী সঠিক পরিকল্পনা এবং এর যথার্থ বাস্তবায়ন। উপকূল ব্যবস্থাপনায় গ্রহণ করতে হবে স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা।  

উপাচার্য   ওয়ার্কসপ সমুদ্র গবেষণা, সমুদ্রের পরিবেশ সুরক্ষায় টেকসই পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন, কর্মসংস্থান এবং উপকূলীয় অঞ্চলে বসবাসরত জনগোষ্ঠীর জীবন মানের উন্নয়ন ও দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনে বিশেষ ভূমিকা রাখবে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে কর্মশালার উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

পরে এ কর্মশালায় উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন সংস্থার বিশেষজ্ঞগণ তাঁদের সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ তুলে ধরেন এবং সার্বিক বিষয়ে স্বল্প মেয়াদে শর্টকোর্স ট্রেনিং এবং দীর্ঘমেয়াদে øাতক-øাতকোত্তর পর্যায়ে উপকূল ব্যবস্থাপনা বিষয়ে শিক্ষণের ব্যাপারে ঐক্যমত পোষণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ