বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০
Online Edition

অচিরেই ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে ---স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন চিকিৎসক সংকট কাটাতে অচিরেই ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। এরমধ্যে খুব তাড়াতাড়ি ৫ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। এই চিকিৎসক নিয়োগ হয়ে গেলে গ্রামে-গঞ্জে আর আর চিকিৎসক সংকট থাকবে না। গত রোববার দুপুরে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে এসে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, দরিদ্র মানুষের একটাই জায়গা সরকারী হাসপাতাল, হেল্থ কমিউনিটি ক্লিনিক। তাদেরকে ঠিকভাবে চিকিৎসা সেবা দিতে না পারলে কোথাও যেতে পারবে না। এজন্য তিনি চিকিৎসকদেরকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আখাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের লোকবলের সংকট কমিয়ে এবং প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপন করে অচিরেই নর্ব নির্মিত ৫০ শয্যার হাসপাতালের উদ্বোধন করা হবে।  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম  বলেন, খালেদা জিয়া ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়। প্রায় ৫ বছর ক্লিনিক তালাবদ্ধ ছিল। মানুষ কোন সেবা পায়নি। আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসে আবার কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করেছে।  

আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। গণতন্ত্রের প্রধান কথা হচ্ছে ভোট। আগামী বছর নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে আপনারা (বিএনপি) আসেন। নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ যে রায় দেবে তা আমরা মেনে নেব। 

মন্ত্রী বলেন, আমরা বিশ্বাস করি এই সরকারের উন্নয়নের ধারা এগিয়ে নিতে জনগণ আওয়ামীলীগকেই ভোট দিবে। 

এদিকে মতবিনিময়ের শুরুতে সদ্য প্রয়াত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান মৎস্য ও প্রাণীসম্পাদ মন্ত্রী এড. ছায়েদুল হক ও চট্টগ্রামের প্রাক্তন মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুতে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করে শোক প্রকাশ করা হয়। তাঁদের রুহের  মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। 

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম বিভাগের স্বাস্থ্য পরিচালক মো. মুজিবুল হক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা: নিশিত কুমার নন্দি, বিএমএ ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখার সভাপতি ডা. আবু সাঈদ, ইউএনও মোহাম্মদ শামছুজ্জামান, সাবেক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: মো. শাহ আলম, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. শফিউর রহমান,উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক মো. জয়নাল আবেদীন, মো. মনির হোসেন বাবুল, ওসি মো. মোশারফ হোসেন তরফদার, ওসি (তদন্ত) মো. আরিফুল আমিন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ