মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

দ্রুতই চাল ও পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হবে --- বাণিজ্যমন্ত্রী

 

স্টাফ রিপোর্টার: খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশের বাজারে চাল ও পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক পর্যায়ে নেবে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। কিছু দিনের মধ্যে চলতি মৌসুমের উৎপাদিত ফসল বাজারে আসতে শুরু করবে, আর এ কারণে দাম অনেকটা কমবে মনে করেন তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বাংলাদেশে সফররত ভারতের আসাম রাজ্যের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এবং গণপূর্তমন্ত্রী পরিমল সুকলাবাইদাসহ ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে আমাদের বাজার সমন্বয় হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়লে, এখানেও বাড়ে। এবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ভারত এবং আমাদের উত্তরাঞ্চল, হাওড় এলাকায় ফসল ধ্বংস হয়ে গেছে।  এখন পেঁয়াজের মৌসুম শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে ভারতের কোন কোন এলাকায় দাম কমতে শুরু করছে। খুব দ্রুতই বাংলাদেশেও পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হয়ে আসবে।

এসময় গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে পেঁয়াজের উৎপাদন, আমদানি ও চাহিদার যেসব তথ্য দেওয়া হয় সেগুলো সঠিক নয়। অনেক সময় না বুঝে অনেক গণমাধ্যম ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে। ফলে বাজার আরো অস্থিতিশীল হয়ে ওঠে। অধিকাংশ পণ্যের দাম কম থাকা সত্ত্বেও একটা পণ্য বিশেষ করে পেঁয়াজের দাম নিয়ে বেশী বেশী লিখে। এসব না করে বাজার স্বাভাবিক রাখতে তিনি গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন,  পণ্যের মূল্যের উর্ধ্বগতি বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বেশী চাপ প্রয়োগ করলে তারা পণ্য বিক্রি করাই বন্ধ করে দেবে তখন সমস্যা আরো বাড়বে। কারণ ব্যবসায়ীদের সংগঠনগুলো খুব শক্তিশালী। বাজার স্বাভাবিক রাখতে ১৪ টি মনিটরিং টিম বাজার তদারকি করছে বলেও জানান তিনি।

ভোক্তারা যে অভিযোগ করেন তা সঠিক না। আমাদের নিয়মিত বাজার মনিটরিং টিম রয়েছে। তারা নিয়মিত কাজও করছে। তবে প্রয়োজনের তুলনায় কম রয়েছে। নতুন ধান এবং পেয়াজ বাজারে উঠতে শুরু করেছে। আশা করা যায় দাম দ্রুত কমবে। এজন্য তিনি গণমাধ্যমের সহায়তা কামণা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ