শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

ফাইনালেও গেইলের ঝড়ো সেঞ্চুরি

স্পোর্টস ডেস্ক : বিপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচের পর হাইভোল্টেজ ফাইনালেও ঝড়ো সেঞ্চুরি হাঁকালেন ‘ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব’ ক্রিস গেইল। ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককলাম ২০১ রানের পার্টনারশিপ গড়ে অপরাজিত থাকেন। ইনিংস শেষে ৬৯ বল খেলে ১৪৬ রান করে অপরাজিত থাকেন ক্রিস গেইল। এই রান করার পথে তিনি পাঁচটি চার ও ১৮টি ছক্কা হাঁকান। ৫১ রান করে অপরাজিত থাকেন ব্রেন্ডন ম্যাককলাম। ক্রিস গেইলের ঝড়ো সেঞ্চুরি ও ব্রেন্ডন ম্যাককলামের হাফ সেঞ্চুরির উপর ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে ২০৬ রান সংগ্রহ করেছে রংপুর রাইডার্স। ফলে, শিরোপা জিততে হলে ঢাকা ডায়নামাইটসকে করতে হবে ২০৭ রান।

১৭তম ওভারের মাথায় ৫৭ বল মোকাবেলায় শতক পূরণ করেন গেইল। তাতে ছিল ৪টি চার ও ১১টি ছক্কার মার। এবারের আসরে এটি তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। সব মিলিয়ে পঞ্চম। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ফিরতি ক্যাচ নিয়ে চার্লসকে (৩) সাজঘরে পাঠান ঢাকা দলপতি সাকিব আল হাসান। পঞ্চম আসরের লিগ পর্বে দু’বারের মুখোমুখি দেখায় রংপুর ও ঢাকা দু’দলই এক ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। প্রথমবারের মতো বিপিএল ফাইনাল খেলছে রংপুর রাইডার্স। ২০১৫ সালে তারা প্লে-অফ খেলেছিল। সেবার অধিনায়ক ছিলেন সাকিব আল হাসান। রংপুর ও ঢাকা দু’দলই লিগ পর্বের নাম্বার ওয়ান দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে। প্রথম কোয়ালিফায়ারে তামিমদের মাত্র ৯৬ রানে গুটিয়ে দিয়ে ৯৫ রানের দাপুটে জয়ে সরাসরি ফাইনাল নিশ্চিত করে ডায়নামাইটস। এলিমিনেটর ম্যাচে গেইলের অপরাজিত ঝড়ো সেঞ্চুরিতে খুলনা টাইটান্সকে বিদায় করে রংপুর। দ্বিতীয় ফাইনালিস্ট হওয়ার মিশনে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে জ্বলে ওঠেন অপরাজিত সেঞ্চুরিয়ান চার্লস ও ম্যাককালাম (৪৬ বলে ৭৮)। ১৯৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৩৬ রানে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় ২০১৫ আসরের চ্যাম্পিয়নরা। বিপিএলের আগের চারটি শিরোপাই মাশরাফি ও সাকিবের দখলে। প্রথমবার তারা ফাইনালে একে অপরের মুখোমুখি। একজন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। 

আরেকজন টি-টোয়েন্টির পর টেস্টের দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছেন। সাকিরের সামনে ব্যাক-টু-ব্যাক শিরোপা জয়ের হাতছানি! অধিনায়ক হিসেবে চারবার ট্রফির জয়ের স্বাদ নিতে মুখিয়ে আছেন মাশরাফি। সাকিবের এটি তৃতীয় ফাইনাল (তিনবারই ঢাকার হয়ে, প্রথম ও তৃতীয় আসরে ছিলেন অন্য টিমে)। দ্বিতীয় এডিশনে মাশরাফির অধীনে খেলেছিলেন। প্রথম দুই আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সকে শিরোপা জিতিয়েছেন মাশরাফি। 

তৃতীয়বার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে যোগ দিয়ে বাজিমাত করেন মাশরাফি। এবার ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’র হাত ধরে রংপুর রাইডার্স বিপিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন হবে অথবা ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ঢাকা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ