সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪ ॥ আহত ৯

চুয়াডাঙ্গা সদর সংবাদদাতা (৩০-১১-১৭) : চুয়াডাঙ্গায় পৃথক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ১ জন নিহত ও আহত হয়েছে ৯ জন । গতকাল ভিন্ন সময়ে চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদা সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে । দুর্ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । পরে সেখানে ১ জন চিকিৎসাধীন অবস্থায় লাল মোহাম্মদ নামের মারা যায় । আহত নয়জন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে । প্রতক্ষদর্শী ও আহতদের সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার সন্দ্যা সাড়ে সাতটার সময় চুয়াডাঙ্গা চৌরাস্থা মোড় থেকে যাত্রী নিয়ে একটি সিএনজি দামুড়হুদার দিকে রওনা হয় । পথিমধ্যে চুয়াডাঙ্গা সার্কিট হাউজের অদূরে পৌঁছিলে পিছন থেকে আসা একটি মিনি ট্রাক সিএনজির পিছনে ধাক্কা দিলে সিএনজি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সামনে থাকা একটি ইজিবাইকের সাথে ধাক্কা লেগে রাস্তার পাশে উল্টে যায় । এ ঘটনার সিএনজির ৫ যাত্রী আহত হয় । আহতরা হলেন দামুড়হুদা উপজেলার দামুড়হুদা মাদরাসা পাড়ার ইসাহাক আলীর ছেলে হাসান (৩৫) ,দামুড়হুদা বাজার পাড়ার আবুল হোসেনের ছেলে সাইফুল (৩৫), ডুগডুগ বাজার পাড়ার ফকির চাঁদ মন্ডলের ছেলে পপুলার লাইফ ইনসুরেন্স চুয়াডাঙ্গা শাখার অফিস সহকারী তাহাব আলী (৪৫), দর্শনার আবু তালের ছেলে রাজু আহম্মেদ (২২), ও উজিরপুর গ্রামের বাবর আলীর ছেলে নজরুল (৪৫)। এদিকে গতকাল রাত ৮টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার একটি ব্যাটারি চালিত ভ্যান দুই জন যাত্রী নিয়ে আদুকদিয়ার উদ্দেশে রওনা হয় । পথিমধ্যে চুয়াডাঙ্গা দৌলাতদিয়াড় মওসুমি বিস্কুট কারখানার সামনে পৌঁছিলে একটি কুকুরের ধাক্কা লাগে । এতে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে ভ্যানে থাকা আলুকদিয়া ইউনিয়নের হাটিকাটা আবাসনের তৈয়ব আলীর ছেলে আবু তালেব (৩৫), ও একই গ্রামের আব্দুস ছালামের স্ত্রী নূর নাহার (৪০) আহত হয় । অপরদিকে, গতকাল বুধবার বেলা ১টার সময় আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাংবাড়িয়ার বাচামারি গ্রামের উত্তরপাড়ার মৃত আত্তাব আলী মন্ডলের ছেলে আব্দুস সাত্তার (৪৫) চুয়াডাঙ্গা শহরে ব্যক্তি কাজ শেষে ইজবাইক যোগে বাড়ি ফেরার পথে আলুকদিয়া জ্যোতি বিস্কুট কারখানার কাছে ইজবাইক থেকে নেমে রাস্তা পার হওয়ার সময় চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুর গামী একটি মোটর সাইকেল তাকে ধাক্কা দেয় । এতে সে রাস্তায় পড়ে গুরুতর আহত হয় । এদিকে বুধবার বেলা ৪টার দিকে আলমডাঙ্গা উপজেলার সনাপুর গ্রামের মৃততাসের মন্ডলের ছেলে লাল মোহাম্মদ (৭০) নিজ গরুর গাড়ি নিয়ে মাঠে যাওয়ার সময় গাড়ি থেকে পড়ে গরুর গাড়ির একটি চাকা তার শরীরের উপর দিয়ে চলে গেলে সে গুরুতর আহত হয় । তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় ।

নেত্রকোনা সংবাদদাতা ঃ নেত্রকোনা- বড়ওয়ারী সিধলী সড়কের পৃথক দুটি স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত হয়েছে। 

 প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানা যায়, নেত্রকোনা সিধলী সড়কের হাতকুন্ডলী নামক স্থানে একটি নষ্ট লড়ি রাস্তার পাশ্ববর্তী ক্ষেত থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে অপর একটি লড়ি দিয়ে তুলতে গেলে দুই লড়ির মধ্যে চাপা পড়ে আনোয়ার হোসেন (২৩) নামক এক শ্রমিক নিহত হয়। তার বাড়ি হাতকুন্ডলী গ্রামে। তার পিতার নাম দেলোয়ার হোসেন। 

 অপরদিকে গতকাল সকালের দিকে কলমাকান্দা উপজেলার ইপিআই কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ মোটর সাইকেল যোগে নেত্রকোনা আসার পথে কোনাপাড়া নামক স্থানে রাস্তা পারাপারের সময় যমুনা আক্তার (৮০) নামে এক অথিশীপর বৃদ্ধা মহিলাকে ধাক্কা দিলে সে মারাত্মক আহত হয়। স্থানীয় লোকজন তাকে মারাত্মক আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসাপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

 এ ব্যাপারে কলমাকান্দা ইপিআই কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মোটর সাইকেলে দুর্ঘটনায় এক মহিলা আহত হওয়ার কথা স্বীকার করেন।  নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আমীর তৈমুর ইলী সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বাগমারা (রাজশাহী) সংবাদদাতা : বাগমারায় সড়ক দুর্ঘটনায় রতন (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। রতন একজন প্যারাসুটের দড়ি (রশি) ব্যবসায়ী। ব্যবসায়ীক কাজে নওগাঁ জেলার রানীনগর হতে বাগমারার মোহনগঞ্জ হাটে যাচ্ছিলেন। চালকের অসাবধানতার কারণেই অকালে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা দুর্ঘটনা কবলিত ঘাতক বাস ও চালককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে সৌর্পদ করেছে। 

পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নওগাঁর রানীনগর উপজেলার পূর্ব বালুপাড়া গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে দড়ি ব্যবসায়ী দড়ির গাইট বিক্রির জন্য ইঞ্জিন চালিত (লছিমন) রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার মোহনগঞ্জ হাটের উদ্দেশে রওনা হয়। লছিমন গাড়িটি বাগমারা উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের বলিদাপাড়া পৌঁছলে আত্রাই থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহী গামী সিয়াম পরিবহন টাঙ্গাইল ব-৩৮২ বাসটি দড়ির লছিমুন গাড়িটিকে অভারটেক করার সময় ধাক্কা দেয়। লছিমন গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার নীচে পড়ে যায়। এতে দড়ি ব্যবসায়ী রতন মিয়া লছিমনের নীচে চাঁপা পড়েন এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যুহয়। বিষয়টি স্থানীয়রা উপলদ্ধি করে বাসটিকে ধাওয়া দিয়ে চালককে আটক করেন এবং গণধোলাই দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ বাসের চালক বাবু (২৫) ও বাসটি তাদের হেফাজতে নেয়। বাবু রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। 

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ বলেন, বাস দুর্ঘটনায় লছিমনের রতন নামের এক যাত্রী নিহত হয়েছে। চালক ও বাসটিকে আটক করা হয়েছে। এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। তবে উভয় পক্ষ থানায় এসেছে বলে থানার ওসি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ