শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনজীবনে দুঃসহ যন্ত্রণা বয়ে আনবে -বাংলাদেশ ন্যাপ

এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন কর্তৃক ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম গড়ে পাঁচ শতাংশ বৃদ্ধির সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা ঘোষিত ৩০ নবেম্বর বৃহস্পতিবার অর্ধদিবস হরতালের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ।
গতকাল রোববার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, বর্তমান মহাজোট সরকার ক্ষমতায় এসে ইতোপূর্বে সাতবার বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি করেছে, বর্তমান বৃদ্ধি নিয়ে মোট অষ্টমবার মূল্যবৃদ্ধি করলো। বার বার এই মূল্যবৃদ্ধির ফলে এর কুপ্রভাব বাড়িভাড়া থেকে শুরু করে কৃষি, সেচ ও সব পণ্যের উপর পড়বে। যা জনজীবনে দুঃসহ যন্ত্রণা বয়ে আনবে।
নেতৃদ্বয় বলেন, গণশুনানিতে বিইআরসি, ভোক্তা সংগঠন ক্যাবসহ বামপন্থী দলগুলোর মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে দেয়া বক্তব্যের বিপরীতে কোনো যুক্তি দিতে ব্যর্থ হয়েছে কমিশন। তারপরও রেন্টাল-কুইক রেন্টালের মাধ্যমে কতিপয় মুনাফালোভী ব্যবসায়ীর মুনাফার স্বার্থে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর এই ঘোষণা বিইআরসির গণশুনানিকে আবারো গণতামাশায় পরিত করেছে।
তারা বলেন, বর্তমান সরকার দেশ ও জনগণের সাথে প্রতিনিয়ত প্রতারণা করে চলেছে। বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির আগে কথিত গণশুনানির নামে জনগণের সাথে রীতিমত তামাশা করা হয়েছে। কথিত শুনানি বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির বিরোধীতা করা হলেও সরকারি দলের রাঘব বোয়ালদের অবৈধ ও অনৈতিক পন্থায় পটেক ভারী করতেই বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে। ফলে দেশের অর্থনীতি ও উন্নয়ন কর্মকান্ডে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভার পড়বে এবং দেশের সার্বিক উন্নয়ন ক্ষতিগ্রস্ত হবে। বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির কারণে উৎপাদন খরচ বাড়বে এবং দেশে ভীষণভাবে মূল্যষ্ফীর্তি দেখা দেবে। যা দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাভাবিক জীবন-যাত্রাকে হুমকীর মুখে ফেলবে।
বিবৃতিতে তারা বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনের উপাদান জ্বালানি তেলের দাম আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কমে গেলেও বাংলাদেশে তা কমানো হয়নি। বিদ্যুতের জন্য আমদানি মূল্যে জ্বালানি সরবরাহ এবং ভর্তুকির টাকাকে ঋণ হিসেবে দেখিয়ে সুদ ধার্য না করলে বিদ্যুতের দাম কোনো ক্রমেই বাড়ানোর প্রয়োজন হবে না বলে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী এবং পিডিবি’র চেয়ারম্যান বলেছিলেন। তারপরও আমদানি মূল্যে জ্বালানি তেল সরবরাহ না করে দাম বাড়ানোর ঘোষণা তাহলে কার স্বার্থে-দেশবাসী তা জানতে চায়।
নেতৃদ্বয় আরো বলেন, এমনিতেই চাল, ডাল, তেল, নুন, পিয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির ফলে জনজীবন বিপর্যস্ত। এরপর বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা মরার উপর খাড়ার ঘা’র সামিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ