বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

লাইফ সাপোর্টে শিল্পী বারী সিদ্দিকী

স্টাফ রিপোর্টার : বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী বারী সিদ্দিকীকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।
গতকাল শনিবার দুপুরে স্কয়ার হাসপাতাল থেকে তথ্য কর্মকর্তা মুকিত হাসান জানান, শুক্রবার রাতে শিল্পীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে দ্রুত হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। লাইফসাপোর্টে রাখা হয়েছে। তিনি জানান, ডা. আবদুল ওহাব খানের তত্ত্বাবধানে শিল্পীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তার দুটি কিডনি অকার্যকর হয়ে গেছে। বহুমূত্র রোগেও তিনি ভুগছেন।
শিল্পী বারী সিদ্দিকী ১৯৫৪ সালের ১৫ নবেম্বর নেত্রকোনা জেলার এক সঙ্গীতজ্ঞ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। প্রথমে একজন বংশীবাদক হিসেবে তিনি খ্যাতি অর্জন করেন। তিনি হুমায়ূন আহমেদের একটি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করে কণ্ঠশিল্পী হিসেবে আবির্ভূত হন। তবে ১৯৯৯ সালে নন্দিত কথাসাহিত্যিক-নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদ নির্মিত ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ চলচ্চিত্রে ছয়টি গান গেয়ে কণ্ঠশিল্পী হিসেবে খ্যাতিলাভ করেন। তার বেশকিছু গান বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করে। তার জনপ্রিয় হওয়া গানগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘শুয়াচান পাখি আমি ডাকিতাছি তুমি ঘুমাইছ নাকি’, ‘পুবালি বাতাসে’, ‘আমার গায়ে যত দুঃখ সয়’, ‘ওলো ভাবিজান নাউ বাওয়া’, ‘মানুষ ধরো মানুষ ভজো’।
বারী সিদ্দিকী-এর ছেলে সাব্বির সিদ্দিকী জানান, দু’বছর ধরে তার বাবা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন। গত বছর থেকে সপ্তাহে তিন দিন কিডনির ডায়ালাইসিস করছেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে যান। সেখান থেকে রাত ১০টা নাগাদ বাসায় ফেরেন। তখনো তিনি স্বাভাবিক ছিলেন। কোনো অসুস্থতার কথা বলেননি। গভীর রাতে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। দ্রুত তাকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
বারী সিদ্দিকীর অবস্থা ক্রমেই অবনতি হচ্ছে জানিয়ে তার ছেলে জানান, চিকিৎসকেরা কোনো আশার কথা বলতে পারছেন না। তিনি বারী সিদ্দিকীর জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ