রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১
Online Edition

মাধবদীর হোটেল রেস্টুরেন্টে নিম্নমানের খাবার বিক্রি স্বাস্থ্য বিধি মানছে না

মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা: তাঁত-পাওয়ারলুমে তৈরি কাপড় আমদানী রপ্তানীতে বাংলার ম্যানচেষ্টার খ্যাত শিল্পাঞ্চল মাধবদী পৌর শহর ও শেখেরচর বাবুরহাটের প্রায় শতাধিক হেটেল রেষ্টুরেন্ট স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে নিম্নমানের খাবার ও বিশুদ্ধ পানির নামে ট্যাঙ্কিতে জমা করা পানি বোতলজাত করে খাবার টেবিলে সরবরাহ করে পানির জন্য আলাদা বিল নিচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। গরুর মাংসের নামে খাওয়ানো হচ্ছে মহিষের মাংস আর খাসির মাংসের নামে ছাগল ভেড়ার মাংস চড়া মূল্যে খাওয়ানো হচ্ছে প্রায় প্রতিটি সাধারণ ও হাইফাই হোটেলে। খোঁজ নিয়ে জানাগেছে মাধবদীর ময়লার ভাগাড় ব্রহ্মপুত্র নদের মরা খালের পাড়ে অস্বাস্থ্যকর দুষিত পরিবেশে প্রতিদিনই রাতের আধাঁরে ও খুব ভোরে ১০ থেকে ১৫টি মহিষ জবাই করা হয়। এখান থেকে চামড়া আলাদা করে ভোরে সরবরাহ করা হয় কসাই খানা বা মাংস বিক্রেতাদের দোকানে। এ ছাড়াও প্রায় ৮০% হোটেল রেষ্টুরেন্ট এর কিচেন রুম ও পানি সরবরাহের নোংরা স্যাঁতসেঁতে  জায়গায় লক্ষ্য করলেই বুঝা যায় যে এখান থেকেই নানা অসুখের জিবানু ছড়ানো খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। গ্রাহক খাবার শেষ করার পর তার খাবারের প্লেটটি একটি প্লাস্টিক বা সিলভারের পাত্রে রাখা হয় যেখানে সকালে রাখা পানিতেই সারা দিন শুধু সেই প্লেটটি চুবিয়ে অন্য আরেক জন গ্রাহককে সে প্লেটটিতেই খাবার দিচ্ছে দোকানি। অন্যদিকে অধিকাংশ হোটেল রেষ্টুরেন্টই রাস্তার পাশে তৈরি করা হয়। সারাদিন গাড়ির চলাচলের সময় এবং সামান্য বাতাসে রাস্তার ধুলা-বালি তৈরি খাদ্য সামগ্রীতে পড়ছে যাতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ছে প্রতিদিনই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ