রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩
Online Edition

ফেনী ও মীরসরাই এলাকায় ৩০ হাজার একর জমিতে ইকোনমিক জোন করা হচ্ছে

সংসদ রিপোর্টার: ফেনী ও মীরসরাই এলাকায় সরকার কর্তৃক ৩০ হাজার একর জমির উপর বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন তৈরি করা হচ্ছে। ইকোনমিক জোনে কাঁচামাল ও উৎপাদিত পণ্য আমদানি ও রপ্তানির জন্য একটি টার্মিনাল নির্মাণের সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দশম জাতীয় সংসদের  নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৪৭তম বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।  কমিটির সভাপতি মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম (বীরউত্তম)-এর সভাপতিত্বে  বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কমিটি সদস্য  নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, তালুকদার আব্দুল খালেক, মোঃ আব্দুল হাই, মোঃ হাবিবর রহমান, এম আব্দুল লতিফ, রনজিৎ কুমার রায়, মোঃ আনোয়ারুল আজীম (আনার) এবং মমতাজ বেগম এ্যাডভোকেট বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন  নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বি আই ডবিউটিসি), মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের কার্যক্রম, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের কার্যক্রম সম্পর্কে বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

মংলা বন্দরকে আধুনিকায়ন এবং বন্দরকে লাভজনক বন্দরে রূপান্তর করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে কমিটি সুপারিশ করে।

কমিটি বাংলাদেশের আরো কতগুলো পোর্ট প্রয়োজন, পোর্ট তৈরির মত প্রয়োজনীয় জায়গা রয়েছে কিনা, বর্তমান পোর্টগুলোর সক্ষমতা সর্বপরি বাংলাদেশের সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে একটি স্ট্র্যাটিজিক প্ল্যান তৈরির জন্য সুপারিশ করে।

বৈঠকে উল্লেখ করা হয় যে, ‘‘ মোংলা বন্দর হতে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত ক্যাপিটাল ডেজিং’’ শীর্ষক প্রকল্পটি ১৬৬ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে বন্দর জেটি হতে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত প্রায় ১৩ কিলোমিটার নদী ড্রেজিং করা হবে।

বৈঠকে আরো উল্লেখ করা হয় যে, ফেনী ও মীরসরাই এলাকায় সরকার কর্তৃক ৩০,০০০ একর জমির উপর বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন তৈরি করা হচ্ছে। ইকোনমিক জোনে কাঁচামাল ও উৎপাদিত পণ্য আমদানি ও রপ্তানির জন্য একটি টার্মিনাল নির্মাণের সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয়েছে।

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবসহ, মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ