শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

চট্টগ্রামে একই সাথে হার্টের টিউমার ও বাইপাস অপারেশন সম্পন্ন

 

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে প্রথমবারের মতো একই সাথে হার্টের টিউমার ও বাইপাস অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে। গত ২২ অক্টোবর চট্টগ্রাম নগরীর হিলভিউ আবাসিক এলাকার বাসিন্দা মৃত আবুল কাশেম তালুকদার এর স্ত্রী খালেদা বেগমের (৬৫) এই জটিল অপারেশনটি সফলভাবে সম্পন্ন করেন হাসপাতালের কার্ডিয়াক টিম। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালের চিফ কার্ডিয়াক সার্জন ডা: সারওয়ার কামাল এর নেতৃত্বে অপারেশটন টিমে ছিলেন, কার্ডিয়াক সার্জন ডা: শরীফুল ইসলাম,চিফ কার্ডিয়াক এনেস্থেসিওলজিস্ট ডা: সুমন শিকদারসহ অন্যান্য সদস্যরা। রোগীর ভাই চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ, কতোয়ালী থানার ওসি জসিম উদ্দিন বলেন, গত দুই মাস আগে হঠাৎ করে আমার বোন বুকে ব্যাথা অনুভব হলে চট্টগ্রামের প্রখ্যাত কার্ডিওলজিস্ট ডা: ইবরাহীম চৌধুরীর নিকট নিয়ে যাই। তিনি পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে দেখতে পান হার্টের মধ্যে বড় একটি টিউমার। তিনি জরুরি ভিত্তিতে অপারেশনের জন্য পরামর্শ দেন। তারপর আমরা ডা: সারওয়ার কামাল এর নিকট এসে অপারেশর করাই। মেট্রোপলিটন হাসপাতালের চিফ কার্ডিয়াক সার্জন ডা: সারওয়ার কামাল জানান, রোগী আমার নিকট অপারেশনের জন্য আসলে আমরা তার হার্টের এনজিওগ্রাম করে দেখতে পাই টিউমারের পাশাপাশি তার হার্টে ব্লক আছে। তারপর আমরা তার হার্টের টিউমার ও বাইপাস অপারেশন করে দেই। রোগী এখন সুস্থ আছে। ডা: সারওয়ার কামাল আরো বলেন, হার্টের টিউমার খবই ভঙ্গুর। এর কিছু অংশ যে কোন মুহূর্তে ছুটে যেতে পারে। টিউমারের ভগ্নাংশ ছুটে গিয়ে ব্রেনের রক্তনালীতে গেলে ব্রেন ষ্ট্রোক, হার্টের রক্তনালীতে গেলে হার্ট এ্যাটাক, পেটের রক্তনালীতে আটকা পড়লে প্রচন্ড পেটে ব্যাথা এবং হাত ও পায়ের রক্তনালীতে গেলে হাত পায়ের রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে হাত পা অবস হয়ে যায়। তাই যত দ্রুত সম্ভব রোগ নির্ণয়ের পর সঙ্গে সঙ্গে এর অপারেশন প্রয়োজন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ