মঙ্গলবার ০৯ মার্চ ২০২১
Online Edition

সুষমা স্বরাজ ও খালেদা জিয়ার সম্ভাব্য বৈঠক নিয়ে রাজনীতিতে বাড়তি উত্তাপ

 

স্টাফ রিপোর্টার: নিজ দেশের অর্থায়নে বাস্তবায়িত ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধনের পাশাপাশি যৌথ পরামর্শক কমিটির বৈঠকে অংশ নিতে আজ রোববার দুপুরে ২৪ ঘণ্টার সফরে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বাংলাদেশে আসলেও মূল আলোচনা চলছে বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাথে বৈঠককে ঘিরেই। রাজনৈতিক মহলসহ সরকারের ভেতরেই এ নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এ বৈঠক বাতিলের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টাও চলছে বলে জানা গেছে। এজন্য দলের সিনিয়র কয়েকজন নেতা কাজ করছেন। জানা গেছে, এই সফরের শেষ পর্যায়ে কাল সোমবার দুপুরে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সুষমা স্বরাজের একান্ত বৈঠক হবার কথা রয়েছে। 

সূত্র মতে, এই সফরে সুষমা স্বরাজ ভারতের অর্থায়নে বাস্তবায়িত ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। এর মধ্যে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার একটি প্রকল্পও রয়েছে। এছাড়া সোমবার (২৩ অক্টোবর) সকালে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনে আয়োজিত এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন। গত এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর এবং এর আগে ২০১৫ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলোর বাস্তবায়ন নিয়েও পর্যালোচনা হবে। তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি এবং রোহিঙ্গা সংকট নিয়েও সরকারের সঙ্গে আলোচনা হবে। সুষমা স্বরাজ দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের জয়েন্ট কনসালটেটিভ কমিশনের (জেসিসি) চতুর্থ বৈঠকে যোগ দেবেন। জেসিসি বৈঠকে দুই দেশের সার্বিক দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হয়। 

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সফর সূচিতে সরকারিভাবে খালেদা জিয়ার সাথে বৈঠকের বিষয়টি না থাকলেও এটিই এখন বেশী আলোচনা হচ্ছে। কারণ সর্বশেষ ভারত সফরে সুষমা স্বরাজের সাথে খালেদা জিয়া একান্তভাবে বৈঠক করেছিলেন। সেই বৈঠক নিয়েও অনেক আলোচনা হয়েছিল। এবার দুই দেশের এই শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার বৈঠকের সময় ও স্থান সম্পর্কে যদিও কোন পক্ষ থেকেই কিছুই জানানো হয়নি তবে সংশ্লিষ্ট কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানস্থ বাসায় এই বৈঠকের আয়োজন করা হতে পারে। বৈঠকের পর বেগম জিয়ার বাসায়ই তার আতিথেয়তায় সুষমা স্বরাজ দুপুরের লাঞ্চ সারতে পারেন। এরপর ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিল্লীর উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বেন বলে ওই একই সূত্র জানিয়েছে। 

বিএনপি সূত্র জানায়, খালেদা জিয়ার সাথে সুষমা স্বরাজের বৈঠকটি নিশ্চিত। দলটির নেতারা জানান, সুষমা স্বরাজের সাথে খালেদা জিয়ার সম্পর্কটা অনেক ভালো। তারা একে অপরের খুব প্রিয় মানুষ। দুই জনই রাজনীতির সাথে সম্পর্কিত। এছাড়া ভারত সফরে সুষমা স্বরাজের আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়েছিলেন খালেদা জিয়া। সব মিলিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে বৈঠকটি না হবার চেষ্টা হলেও সেটি বুমেরাং হবে। তারা বলেন, বৈঠকে দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় ছাড়াও আগামী নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হবে। 

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে বহনকারী বিশেষ প্লেনটি রোববার (২২ অক্টোবর) দুপুর ১২টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার কুর্মিটোলায় বঙ্গবন্ধু বিমান বন্দরে অবতরণ করবে। ঢাকা পৌঁছার পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বিমান বন্দরে স্বাগত জানাবেন। বিকেল সাড়ে ৫টায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় দুই দেশের চতুর্থ যৌথ পরামর্শক কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এ বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এবং ভারতের পক্ষে সুষমা স্বরাজ। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সুষমা স্বরাজ গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ