মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

সংস্কারের অভাবে বেহাল ডুমুরিয়ার বামুন্দিয়ার বাজনদার পাড়া-কালীতলা সড়ক

খুলনা অফিস : দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় বেহাল অবস্থা খুলনার ডুমুরিয়ার খর্ণিয়া ইউনিয়নের বামুন্দিয়া গ্রামের বাজনদারপাড়া থেকে কালীতলা পর্যন্ত অন্তত আড়াই কিলোমিটার সড়ক। সড়কটির বিভিন্ন স্থানে পাড় ভেঙ্গে আর ইট উঠে গিয়ে বর্তমানে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ফলে ওই গ্রামের বাসিন্দাদের চলাচলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।
জানা গেছে, ডুমুরিয়া উপজেলার বামুন্দিয়া গ্রামে অন্তত ২০ হাজার মানুষের বসবাস। এসব বাসিন্দাদের  যাতায়াতের একমাত্র এই রাস্তা। এছাড়া পার্শ্ববর্তী খর্ণিয়া, ডুমুরিয়া, গাবতলা ও টিপনা বাজারসহ আশপাশ স্থানে যাতায়াতেও সড়কটি ব্যবহৃত হয়। সড়কটির গুরুত্ব বিবেচনায় ১৯৯৭ সালে সড়কটিতে ইটের সোলিং বসানো হয়। কিন্তু এরপর ২০ বছরেও ওই সড়ক আর সংস্কার হয়নি। ফলে সড়কটি বর্তমানে চলাচলের  অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কের বেশির ভাগ জায়গার ইট উঠে  ও ভেঙ্গে চুর্ণ-বিচুর্ণ হয়ে গেছে। অনেক স্থানের সড়কের পাশ ভেঙ্গে পুকুর, নালা ও বিলের সাথে মিশে গেছে। আর পুরো সড়কের মাঝখানে উঁচু হয়ে ইট নড়বড় করছে।  যে কারণে ওই এলাকার বাসিন্দাদের চলাচলে ভোগান্তি হচ্ছে। প্রায় ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা।
এলাকাবাসী জানায়, সংস্কার আর রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে সড়কটির আজ এ দশা। অধিকাংশ জায়গার অর্ধেক সড়ক পর্যন্ত ভেঙ্গে গেছে। ইটগুলো ছড়িয়ে ছিটিয়ে ও উঁচু-নিচু হয়ে পড়ে আছে। কোনোভাবেই যানবাহনে নিরাপদে চলাচলের উপযোগী নেই। আর সামান্য বৃষ্টিতে সড়কটি আরও বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। পুরো সড়ক এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ৪নং খর্ণিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ দিদারুল হোসেন দিদার বলেন, রাস্তাটি কার্পেটিং করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে একটি প্রকল্প প্রস্তাব খুলনা স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে। তারা এটি অনুমোদনও দিয়েছে। খুব শিগগিরই কাজ শুরু হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ