শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

অপহরণকারী গ্রেফতার

 

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা: বরিশালের আগৈলঝাড়ায় কিশোরী অপহরণের একমাস পর উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

থানা সূত্রে জানা গেছে, গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলার কালারবাড়ি গ্রামের ফজলুল হক খানের মেয়ে মাদ্রাসা ছাত্রী কাজলী আক্তার (১৫)কে পয়সারহাট লোকাল বাসস্ট্যান্ড থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের দক্ষিণ বাগধা গ্রামের মোহাম্মদ আলী সরদারের ছেলে সান্টু সরদার ওরফে কালাম (৪৫)। মাদ্রাসা ছাত্রী কাজলী আক্তার আগৈলঝাড়া উপজেলার পয়সারহাট গ্রামে মামা বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করত। এঘটনায় অপহৃতার পিতা ফজলুল হক খান বাদী হয়ে সান্টু সরদারসহ পাঁচ জনকে আসামী করে ৮ সেপ্টেম্বর রাতে আগৈলঝাড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৩(৮/০৯/১৭)। 

মামলা দায়েরের একমাস পরে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার কুড়িল এলাকার একটি বাসা থেকে শুক্রবার রাতে অপহৃতা কাজলী আক্তারকে উদ্ধার ও অপহরণকারী সান্টু সরদারকে গ্রেফতার করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহিদুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সান্টু সরদার অপহরণের কথা স্বীকার করেন। 

এছাড়া পুলিশের কাছে সান্টু সরদার ৬টি বিয়ের কথা স্বীকার করলেও তার এলাকা সূত্রে অর্ধশতাধিক বিয়ের খবর পাওয়া গেছে। অপহৃতা ও অপহরণকারীকে বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।  

কুপিয়ে জখম

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ইয়াবা সেবন ও মাদক ব্যবসার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক মাদকসেবীকে কুপিয়ে জখম করেছে অপর মাদকসেবী। 

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে উপজেলা হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। আহত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতে উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের রাহুতপাড়া গ্রামের শিশির অধিকারীর ছেলে সাগর অধিকারীর (১৬) সাথে অশোকসেন গ্রামের নবীন হালদারের ছেলে সুমন হালদারের ইয়াবা সেবন ও মাদক ব্যবসার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে বাকবিতন্ডার এক পর্যায় সুমন ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে সাগর অধিকারীকে। এসময় স্থানীয়রা সাগরকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে আনলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ