শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সস্ত্রাসী টেনি নিহত

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ টেনি (২৭) নামে এক দুর্ধর্ষ ও শীর্ষ সস্ত্রাসী নিহত হয়েছে। উদ্ধার হয়েছে ১টি বিদেশী পিস্তল, ১টি ম্যাগাজিন ও ২ রাউন্ড পিস্তলের গুলী। আহত হয়েছে পুলিশের ৩ সদস্য। গতকাল মঙ্গলবার ভোররাত পৌনে ৪ টার দিকে পিপুলবাড়িয়া-বালিয়াডাঙ্গা মাঠের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে। নিহত সন্ত্রাসী টেনি উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের ছাতারপাড়া গ্রামের আলম মন্ডলের ছেলে।
দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটানোর উদ্দেশ্যে দৌলতপুর-কাতলামারী সড়কের পিপুলবাড়িয়া-বালিয়াডাঙ্গা মাঠের মধ্যে অবস্থানের গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানার এসআই রহিমের নেতৃত্বে পুলিশের টহল দল সেখানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশের গাড়ীকে লক্ষ্য করে গুলী চালায়। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলী চালালে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে গুলীবিদ্ধ একজনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা দৌলতপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী টেনিকে শনাক্ত করে। সন্ত্রাসী টেনির বিরুদ্ধে হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধের অর্ধডজন মামলা রয়েছে।
‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন এবং ঘটনাস্থল থেকে বিদেশী পিস্তল, ম্যাগজিন ও গুলী উদ্ধার বলে ওসি শাহ দারা খান জানিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ