ঢাকা, শুক্রবার 14 August 2020, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ জিলহজ্ব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

'কুর্দিস্তানের বিচ্ছিন্নতার বিরুদ্ধে সব ব্যবস্থা নেবে তুরস্ক' 

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম

অনলাইন ডেস্ক: তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ইরাকের স্বায়ত্বশাসিত কুর্দিস্তান অঞ্চলে পরিকল্পিত গণভোট অনুষ্ঠিত হলে তার দেশ ওই অঞ্চলের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া ঠেকাতে সব ব্যবস্থা নেয়ার পথ খোলা রেখেছে। এমনকি প্রয়োজনে আঙ্কারা সীমান্ত অতিক্রম করে সামরিক অভিযান চালাবে বলেও তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন।

শনিবার আঙ্কারায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই সতর্কবাণী উচ্চারণ করেন তুর্কি প্রধানমন্ত্রী। তুরস্ক সীমান্ত অতিক্রম করে সামরিক অভিযান চালাবে কিনা- একজন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “আমাদের পক্ষ থেকে অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তাগত ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি এখন সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। পরিস্থিতি যেদিকে এগুচ্ছে তাতে তা করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।”

এদিকে তুরস্কের পার্লামেন্ট দেশটির সরকারকে ইরাক এবং সিরিয়ায় সামরিক অভিযান চালানোর অনুমোদনের মেয়াদ বাড়িয়েছে। ২০১৫ সালে প্রথমবার এই ম্যান্ডেট দেয়া হয়েছিল। এরইমধ্যে ইরাকের কুর্দিস্তান সীমান্তে সেনা উপস্থিতি বাড়িয়েছে তুরস্ক।

অন্যদিকে ইরাকের কুর্দিস্তানের গণভোট কাউন্সিলের সদস্য হোশিয়ার জেবারিয়া বলেছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর বিরোধিতা সত্ত্বেও নির্ধারিত সময়েই গণভোট অনুষ্ঠিত হবে এবং এটি স্থগিত করার কোনো পরিকল্পনা নেই।

ইরাক থেকে কুর্দিস্তানের বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে ওই অঞ্চলে আগামীকাল ২৫ সেপ্টেম্বর গণভোট অনুষ্ঠানের ব্যাপারে কুর্দিস্তান স্বশাসন কর্তৃপক্ষ বদ্ধপরিকর। বিশ্লেষকরা বলছেন, কুর্দিস্তানের জনগণ ইরাক থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলে মধ্যপ্রাচ্যে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হবে।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-এবাদি একাধিকবার এই গণভোট স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছেন। ইরাকের তিন প্রতিবেশী দেশ ইরান, তুরস্ক ও সিরিয়াসহ বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ এই গণভোটের বিরোধিতা করেছে। -পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ