শুক্রবার ০৭ আগস্ট ২০২০
Online Edition

২৯৩ হাফেজ ও ৩ শতাধিক জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা

গতকাল শনিবার ইন্টা” কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় তানযীমুল উম্মাহ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘৮ম হিফযুল কুরআন অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠান হয়

স্টাফ রিপোর্টার : ২৯৩ হাফেজ ও ৩ শতাধিক জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দিলো তানযীমুল উম্মাহ ফাউন্ডেশন। ‘৮ম হিফযুল কুরআন অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠানে শুধু শিক্ষার্থীদেরই নয়, তাদের পিতামাতাকেও সংবর্ধনা দেয়া হয়। গতকাল শনিবার ইন্টা. কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।
সংবর্ধনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিচারপতি মো. আবদুর রউফ, বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড এর চেয়ারম্যান প্রফেসর এ. কে. এম. ছায়েফ উল্যা, ফাদিলাতুশ শায়খ সাইয়েদ কামাল উদ্দীন জাফরী।
অতিথিবৃন্দ কুরআনের হাফিযদের সম্মাননা জানানোর এই চমৎকার উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, তানযীমুল উম্মাহ’র মতো প্রতিষ্ঠান বারবার সারাবিশ্বে হিফয প্রতিযোগীতায় প্রথম হয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে।
আরো বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ড. এ বি এম হিযবুল্লাহ, ড. হাসান মুহাম্মাদ মুঈনুদ্দীন, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের জ্যৈষ্ঠ পেশ ইমাম মুফতী মুহিব্বুল্লাহিল বাকী আন-নদভী, শায়খ মুহাম্মাদ শাহজাহান মাদানী, প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী। তানযীমুল উম্মাহ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শায়খ হাবীবুল্লাহ মুহাম্মাদ ইকবালের সভাপতিত্বে এ প্রোগ্রামে তানযীমুল উম্মাহ’র ভাইস চেয়ারম্যানবৃন্দ, পরিচালকবৃন্দ ও চার সহস্রাধিক অভিভাবক, সুধীগণ উপস্থিত ছিলেন।
সকালে শুরু হয়ে দিনব্যাপী চলমান এ মনোমুগ্ধকর অনুষ্ঠানে শিশুদের কন্ঠে তিলাওয়াত, ইসলামী সঙ্গীত, দেশাত্মবোধক গান ইত্যাদি পরিবেশনা উপস্থিত সবাইকে মোহিত করে।
তানযীমুল উম্মাহ’র দেশব্যাপী শাখাসমূহের ২৯৩ জন শিক্ষার্থীকে কুরআন হিফয সমাপন ও গত এক বৎসরে জিপিএ-৫ তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর পাওয়া উপলক্ষে সম্বর্ধনার আয়োজন করা হয়।  
১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত তানযীমুল উম্মাহ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে একাধিকবার সারাদেশে প্রথম হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্ব হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় দশবারের অধিক মেধা তালিকায় স্থান লাভ করে এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ