সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

সব বিষয়ে ভর্তি হতে পারবে মাদরাসা শিক্ষার্থীরা 

 

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষ বিএফএ সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় এই পরীক্ষা শুরু হয়। চলে সকাল ১১টা পর্যন্ত। চারুকলা অনুষদসহ ক্যাম্পাসের মোট ১১টি কেদ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই ইউনিটে ১৩৫ আসনের বিপরীতে ১৩ হাজার ৪৭২ পরীক্ষার্থী আবেদন করে। আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর চ-ইউনিটের অংকন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। গত শুক্রবার গ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। 

এ বছর পাঁচটি ইউনিটে মোট আবেদনকারীর সংখ্যা ২ লাখ ৬৩ হাজার ৩৯। ৭ হাজার ১২৩টি আসনের বিপরীতে তারা এ ভর্তি যুদ্ধে অংশ নিয়েছে। প্রতিটি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৭। এর মধ্যে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ক-ইউনিটে ১ হাজার ৭৬৫টি আসনের জন্য ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ৮৯ হাজার ৪৮৭। কলা অনুষদভুক্ত খ-ইউনিটে ২ হাজার ৩৬৩টি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ৩২ হাজার ৭৩৬। সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ঘ-ইউনিটে ১ হাজার ৬১০টি আসনে জন্য ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা সর্বোচ্চ ৯৮ হাজার ৩৩। 

এর মধ্যে গত শুক্রবার ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ১ হাজার ২৫০টি আসনের বিপরীতে পরীক্ষায় অংশ নেয় ২৯ হাজার ৩১১ এবং গতকাল শনিবার চারুকলা অনুষদভুক্ত চ ইউনিটে ১৩৫টি আসনের বিপরীতে ১৩ হাজার ৪৭২ জন ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়।

এদিকে শর্ত পূরণ করায় ভালো সাবজেক্টগুলোতে ভর্তির ক্ষেত্রে আর কোন বাঁধা থাকলো না মাদরাসা শিক্ষার্থীদের। দাখিল ও আলিম পর্যায়ে ২০০ নম্বরের বাংলা ও ইংরেজি শর্ত পূরণ হওয়ায় মাদরাসা শিক্ষার্থীরা এখন ঢাবির যে কোন বিষয়ে ভর্তির সুযোগ পাবেন। এর আগে মাধ্যমিক (দাখিল) ও উচ্চ মাধ্যমিকে (আলিম) ২০০ নম্বর করে বাংলা ও ইংরেজি না পড়ায় বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রথম সারির বেশ কয়েকটি বিষয় পাওয়া থেকে বঞ্চিত হতেন তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ২০০ নম্বরের শর্ত পূরণ করায় মাদরাসার শিক্ষার্থীরা চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে সব বিষয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে। তিনি বলেন, বহুদিন ধরে একটা অপপ্রচার চলে আসছে যে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদরাসার শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয় না। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরাই ভর্তি হতে পারে। তবে যারা শর্ত পূরণ করবে তারাই কেবল কয়েকটি বিষয়ে ভর্তি হতে পারত। এটা একটা ইউনিভার্সেল সিস্টেম। এখানে যারা নিয়মনীতি পূরণ করবে তারাই সব বিষয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে। তাই মাদরাসার ছাত্ররা এবার থেকে সব শর্ত পূরণ করায় সব বিষয়ে ভর্তি হতে পারবে।

দীর্ঘদিন ধরে বাংলা এবং ইংরেজিতে ২০০ নম্বর না পড়ায় জ্ঞান অর্জনের দিকেও স্কুলপড়–য়া শিক্ষার্থীদের থেকে অপেক্ষাকৃতভাবে পিছিয়ে পড়তে হয়েছিল মাদরাসা শিক্ষার্থীদের। তাই বিষয়টি আমলে নিয়ে ২০১৩ সালে সর্বপ্রথম দাখিল ও আলিমে ২০০ নম্বরের বাংলা এবং ইংরেজি মাদরাসার সিলেবাসভুক্ত করে মাদরাসা বোর্ড।

এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৫ সালে দাখিল এবং ২০১৭ সালে আলিম পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা ২০০ নম্বর করে বাংলা এবং ইংরেজি পড়ে আসেন। তাই সর্বপ্রথম ব্যাচ হিসেবে এরাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এ শর্ত পূরণ করতে পেরেছেন। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা, ইংরেজি, ভাষা বিজ্ঞান, সমাজ বিজ্ঞান, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, অর্থনীতি, উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা, পপুলেশন সায়েন্স, ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অধ্যয়ন, ক্রিমিনোলজি, কমিউনিকেশন ডিজঅর্ডারস, প্রিন্টিং অ্যান্ড পাবলিকেশন্স স্টাডিজ, ইংলিশ ফর স্টিকারস অ্যান্ড আদার্স ল্যাঙ্গুয়েজ, ফ্রান্স ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কালচার, চায়নিজ ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কালচার এবং জাপানিজ ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কালচার এসব বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষার্থীদের ভর্তিতে কোনো বাধা নেই।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ