শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

আগামী ৫ বছর পর চট্টগ্রাম হবে জলাবদ্ধতা, যানজটমুক্ত নগরী

চট্টগ্রাম অফিস : সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেছেন, আগামী ৫ বছর পর চট্টগ্রাম ৫০ বছর এগিয়ে যাবে। চট্টগ্রাম তখন যানজটমুক্ত, জলাবদ্ধতামুক্ত একটি দৃষ্টিনন্দন বাণিজ্যিক নগরীতে পরিণত হবে। নগরবাসীর কাছে আমার অনুরোধ, আপনারা আমাকে সহযোগিতা করুন। আমি আপনাদের একটি সুন্দর বাসযোগ্য নগরী উপহার দিতে পারবো ইনশাল্লাহ।
তিনি সম্প্রতি নগরীর জিইসি ওয়েল পার্ক রেসিডেন্সে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। ‘চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃ খনন, সম্প্রসারণ, সংস্কার ও উন্নয়ন’- শীর্ষক প্রকল্প একনেকে অনুমোদন পরবর্তী সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুছ ছালাম।
সিডিএ চেয়ারম্যান মতবিনিময় সভায় সিডিএর চলমান উন্নয়ন প্রকল্প, এগুলোর বাস্তবায়ন এবং একনেকে সম্প্রতি অনুমোদিত জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের গুরুত্ব সম্পর্কে তথ্য উপস্থাপন করেন।
তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নগর উন্নয়নের দায়িত্ব দিয়েছেন। গত আট বছরে সেই দায়িত্ব পালনে আমি অবিচল ছিলাম। আমি আমার যোগ্যতা, মেধার পুরোটাই এ কাজে নিয়োজিত করার চেষ্টা করেছি।
সিডিএ চেয়ারম্যান জানান, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে নগরীর লালখান বাজার থেকে মুরাদপুর পর্যন্ত আখতারুজ্জামান চৌধুরী ফ্লাইওভারের কাজ শেষ হয়ে যাবে। শুধু জিইসি মোড়ে র‌্যাম্পের কাজ চলমান থাকবে এবং পুরো ফ্লাইওভারের কাজ আগামী বছরের এপ্রিল মাস নাগাদ সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। আগামী অক্টোবর মাস থেকে শুরু হবে প্রায় ৩২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে লালখান বাজার থেকে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর পর্যন্ত ফ্লাইওভারের কাজ। এই ফ্লাইওভারের টাইগারপাস, আগ্রাবাদ, কাস্টমস, ইপিজেড, কেইপিজেড এলাকায়  বাসস্ট্যান্ড থাকবে। যাতে সহজেই গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ