সোমবার ৩০ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় নতুন দিগন্তের উন্মোচন

হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অনুষদের ১ম ব্যাচের ইন্টার্নশিপ সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীদের সনদপত্র প্রদান ও নতুন ব্যাচের ইন্টার্নশিপ ট্রেনিং এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক ডা. রশিদ-ই-মাহবুব

হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অনুষদের ১ম ব্যাচের ব্যাচেলর অব ইউনানি মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (বিইউএমএস) ও ব্যাচেলর অব আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারি (বিএএমএস)-এর শিক্ষার্থীগণ বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব হেলথ সাইন্সের আওতাধীন ন্যাশনাল হেলথ কেয়ার নেটওয়াকের্র তত্ত্বাবধানে ইন্টার্নশিপ সম্পন্ন করে। গত ২৮ আগস্ট ২০১৭ কোর্স সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীদের সনদপত্র প্রদান ও নতুন ব্যাচের ইন্টার্নশিপ ট্রেনিং এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ইউনানি ও আয়ুবেদিক মেডিসিন অনুষদের ডিন ও বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান-এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অনুষদের ১ম ব্যাচের ৪০ জন শিক্ষার্থীকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির ন্যাশনাল হেলথকেয়ার নেটওয়ার্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. এম এ সামাদ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক ড. হাকীম মোঃ ইউছুফ হারুন ভূঁইয়া, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির মহাসচিব এম সাইফ উদ্দিন, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক ডা. রশিদ-ই-মাহবুব, হামদর্দ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের পরিচালক লে. কর্নেল মাহবুবুল আলম চৌধুরী (অব.), হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের রেজিস্ট্রার জনাব লুৎফর রহমান, হামর্দদ বাংলাদেশের পরিচালক মানব সম্পদ উন্নয়ন ডা. হাকীম নার্গিস মার্জান, হামদর্দ বাংলাদেশের পরিচালক পরিকল্পনা ও উন্নয়ন মোঃ জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ-এর ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিসিন অনুষদের শিক্ষার্থীগণ অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসকবৃন্দের তত্ত্বাবধানে ইন্টার্নশিপ সম্পন্ন করেছে। বাংলাদেশে সমন্বিত চিকিৎসায় এটিই প্রথম উদ্যোগ। এদেশে ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভিত্তিকে আরো সুদৃঢ় করতে এক নতুন যাত্রা শুরু হলো। বাংলাদেশে ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের ইতিহাসে আজকের এ দিনটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ ও ন্যাশনাল হেলথ কেয়ার নেটওয়ার্কের যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশে এই প্রথম ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা অ্যালোপ্যাথিক ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে ইন্টার্নশিপের সুযোগ পেয়েেেছ। যদিও পাশর্^বর্তী দেশ ভারতে এ ব্যবস্থা আগে থেকেই রয়েছে। আজকের অনুষ্ঠান বাংলাদেশে ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা বিজ্ঞনের উন্ন্য়নের মাইলফলক তৈরি করলো। বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির এনএইচএন পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. সি. এম. দিলওয়ার রানার সঞ্চালনায় বক্তারা পারস্পারিক এ সহযোগিতার বন্ধন আরো সুদৃঢ় করে বাংলাদেশে এ বিজ্ঞানের ভিতকে আরো মজবুত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ