রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সোনারগাঁয় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের হাবিবপুর গ্রামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এবিষয়ে গত শনিবার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, আড়াইহাজার উপজেলার তিলচন্দী গ্রামের ফজলুল হক ভূইয়ার মেয়ে শিরিন আক্তারের  সঙ্গে  একই উপজেলার বিষনাদী গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে ডালিম মিয়ার সঙ্গে সাত মাস আগে বিয়ে হয়। বর্তমানে তারা মোগরাপাড়া গ্রামের হাবিবপুর গ্রামের আব্দুর রশিদ খানের বাড়িতে ভাড়া বাসায় বসবাস করে  আসছিল। বিয়ের পর থেকে তার স্বামী ডালিম মিয়া বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন চালাত। সম্প্রতি ১০হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে। দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে পরিকল্পিত ভাবে তাকে হত্যা করে তার লাশ সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে লাশ ফেলে রেখে চলে যায় তার শশুর বাড়ির লোকজন।
নিহত গৃহবধূর বাবা ফজলুল হক ভূঁইয়া বলেন, আমার মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকজন  ও মেয়ের জামাই যৌতুকের টাকা না পেয়ে গলায় শ্বাস রোধ করে আমার মেয়েকে হত্যা করে পালিয়ে যায় তারা।
সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোর্শেদ আলম বলেন, নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন আসলেই বিষয়টি হত্যা না আত্মহত্যা জানা যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ