মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

কোম্পানীগঞ্জে টর্নেডোর আঘাতে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ৫ কোটি টাকা

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) সংবাদদাতা  : নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জে চরএলাহী ইউনিয়নের ১,৩,৪ ওয়ার্ড ও চরফকিরা ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রাম ও ভূমিহীন বাজারে টর্নেডো আঘাতে ১৫০টি ঘর বাড়ি  ও ১৫টি পোল্ট্রি ফার্ম লন্ডভন্ড হয়েছে। টনেডোর আঘাতে নারী পুরুষ ও শিশুসহ আহত ২৫। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫ কোটি টাকার। 

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় সময় অভিরাম বর্ষণের মধ্যে চরএলাহী ইউনিয়নের দক্ষিণে ছোট নদীর তীরবর্তী এলাকা থেকে হঠাৎ বাতাসের প্রচন্ড বেগে ঝড়, বৃষ্টি ও ঘূর্ণিঝড় এর মধ্যে টর্নেডো চরাঞ্চলে অসহায় মানুষদের ১৫০টি ঘর বাড়ি, গুচ্ছগ্রাম ও ভূমিহীন বাজারসহ ১৫টি পোল্ট্রি ফার্ম ১০০ ফুট উপরের দিকে উড়িয়ে অন্যত্র ফেলে দেয়। এ সময় আশপাশের লোকজন ছুটাছুটি করে এসে ২৫জন আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। আহতদের কে উপজেলার বিভিন্ন প্রাইভেট কিèনিকে ভর্তি করা হয়। গুরুতর আহত সুমাইয়া আক্তার (১৩) নামে এক ছাত্রীর গলা কাটা অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মানুষ খোলা আকাশের নীচে অবস্থান করছেন। উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে এ টর্নেডো ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় এখন ত্রাণসামগ্রী পৌঁছেনি। অনেকে দুপুরের খাবার না খেয়ে ত্রাণের জন্য অপেক্ষ করেন।  

এ ব্যাপারে চরএলাহী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার কামাল উদ্দিন জানান, হঠাৎ করে চরএলাহী ইউনিয়নের দক্ষিণ সীমান্ত ছোট নদীর তীর থেকে আগুনের মত একটি শিখা ঘোরপাক করে মানুষের ঘর বাড়ি, পোল্ট্রি ফার্ম, গুচ্ছগ্রাম ও ভূমিহীন বাজার লন্ডভন্ড হয়ে যায়। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জামিরুল ইসলাম টর্নেডো ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ