বৃহস্পতিবার ০৬ আগস্ট ২০২০
Online Edition

অজিদের ভাবনায় বিসিবির কোচিং স্টাফ!

­স্পোর্টস রিপোর্টার : দীর্ঘ এক যুগ পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। স্বভাবতই অসিদের কৌশল সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই মুশফিকুর রহিমদের। তবে স্বাগতিকদের দলে এমন একজন আছেন, যিনি স্টিভেন স্মিথদের দুর্বলতা সম্পর্কে বেশ ভালোই জানেন। তিনি হলেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। বাংলাদেশের কোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের আগে অস্ট্রেলিয়ার ক্লাব ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন হাথুরুসিংহে। ২০১১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত নিউ সাউথ ওয়েলসের সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। পরে এক বছরের জন্য ক্লাবটির অন্তর্বতী প্রধান কোচের দায়িত্বেও ছিলেন। এরপর ২০১৫ সালে এক মৌসুমের জন্য সিডনি থান্ডারের কোচ হন। পেশার সুবাদে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের সম্পর্কে বেশ ভালো ধারণা রয়েছে লংকান এ কোচের। বর্তমান দলটির অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ থেকে শুরু করে সহঅধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার, দুই পেসার জশ হ্যাজেলউড ও প্যাট কামিন্স এবং স্পিনার নাথান লায়নের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। তাই বাংলাদেশ সফরের আগে ‘হাথুরু’ ফ্যাক্টরকে বড় করে দেখছে অস্ট্রেলীয় মিডিয়া। সম্প্রতি ফক্স স্পোর্টসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘরের মাটিতে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর লক্ষ্যে একের পর এক অস্ট্রেলীয় কোচ নিয়োগ দিচ্ছে বাংলাদেশ। প্রধান কোচ হাথুরুর পাশাপাশি  নিউ সাউথ ওয়েলসের সাবেক ব্যাটিং কোচ মার্ক ও’নিলকে ব্যাটিং উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগের পর অভিজ্ঞ লেগস্পিনার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিলকে যোগ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড । এতে বলা হয়েছে, অস্ট্রেলীয়দের হারানোর কৌশল অস্ট্রেলিয়ার বাইরে পাওয়া কঠিন। তাই দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ সামনে রেখে অস্ট্রেলীয়দের কোচ হিসেবে বেছে নিচ্ছে বাংলাদেশ। আর এ পরিকল্পনার তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন হাথুরুসিংহে। যদিও অসি-বধের কৌশল জানা আছে, এমনটা মানতে নারাজ হাথুরু, একজন খেলোয়াড়ের কৌশল সম্পর্কে জানার দরকার হলে তার সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক না থাকলেও চলে। কারণ আশপাশে প্রচুর সহজলভ্য তথ্য রয়েছে। দিন শেষে আপনার পারফরম্যান্সই প্রমাণ করবে সেই তথ্য আপনি কতটা কাজে লাগাতে পেরেছেন। তবে অস্ট্রেলীয় ক্লাব ক্রিকেটে কাটানো চার বছরকে ‘বড় অভিজ্ঞতা’ বলে মানছেন হাথুরু,  আপনি যখন কোনো দল কিংবা খেলোয়াড়দের সঙ্গে লম্বা সময় কাজ করবেন, তখন তাদের সম্পর্কে আপনি অনেক কিছু জানতে পারবেন। এটা আপনাকে মানসিকভাবে এগিয়ে রাখবে, গেমপ্লানে সাহায্য করবে। তবে এটা তাদের সুনির্দিষ্ট কোনো দুর্বলতা চিহ্নিত করতে যথেষ্ট নয়। আপনি যা পারবেন, তা হলো অস্ট্রেলিয়ার কৌশল সম্পর্কে দলের সঙ্গে আলোচনা করতে পারবেন। কী করে ওদের বোকা বানানো যায়, কী করে অস্বস্তিতে ফেলা যায়। এ সময় অস্ট্রেলীয় স্পিনার নাথান লায়নের প্রসঙ্গ টেনে হাথুরু বলেন, যেমন ধরুন, নাথান লায়ন বোলিং করছেন, আপনি তার সম্পর্কে জানেন, ব্যাটসম্যানরা কী করলে সে পছন্দ করে কিংবা কী করলে অপছন্দ করে। এ রকম ধারণা আপনি যেকোনো দল সম্পর্কেই পেতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ