রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

উন্নত ক্যারিয়ার গড়ার মাধ্যমে সম্ভাবনার বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে তুলে ধরতে হবে

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তরের উদ্যোগে এইচএসসি-আলীম পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের তাৎক্ষণিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথিদের সঙ্গে উপস্থিত কৃতী ছাত্রদের একাংশ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কাজী মুহাম্মদ বরকত আলী বলেন, বিশ্বের একটি অন্যতম সম্ভাবনার দেশ প্রিয় বাংলাদেশ। এদেশে প্রাকৃতিক সম্পদের পাশাপাশি রয়েছে বিপুল জনগোষ্ঠী। যাদেরকে যথাযথ পরিকল্পনা ও পরিচর্যার মাধ্যমে আমরা জনসম্পদে রূপান্তর করতে পারবো। এতে করে এসব জনসংখ্যা আমাদের দেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়াবে না। অত্যাধিক জনসংখ্যার এ দেশের জন্যে যত বিজ্ঞানী, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, শিক্ষাবিদসহ বিভিন্ন পেশাজীবী দরকার তা আমাদের প্রয়োজনের তুলনায় কাংখিত নয়। আবার যেটুকু আছে তা দিয়ে দেশের মানুষ তাদের ন্যূনতম সেবা পাচ্ছে না। কেননা অফিস আদালতের সর্বত্র আজ দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। জনগণের সুবিধার্থে সরকার রাস্তা, কালভার্ট, ব্রীজ, বড় বড় সরকারী দালান তৈরি করলেও সে সব কাজে রডের বদলে বাঁশ, সিমেন্টের বদলে কাঁদা মাটি ব্যবহার করে একাজে নিয়োজিত পদস্থ কর্মকর্তারা সাধারণ মানুষের জীবনের সাথে চরম উপহাস করছে।
সরকারী অফিস গুলোতে ঘুষ, উৎকোচ ছাড়া এক টেবিলের ফাইল অন্য টেবিলে সহজে নড়া ছড়া করে না।
প্রয়োজনীয় যোগ্য মানুষের অভাবে আমাদের লুকানো প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবহার করতে পারছি না। তাই উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে উন্নত ক্যারিয়ার গড়ার মাধ্যমে প্রত্যেক ছাত্রকে সম্ভাবনার প্রিয় বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে এগিয়ে আসতে হবে।
চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর শিবির’র উদ্যোগে এইচএসসি-আলীম ছাত্রদের ’ক্যারিয়ার গাইড লাইন’ প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আজ (২৩.০৭.’১৭) এসব কথা বলেন। নগর উত্তর শিবির সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম’র সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী এস কে সিকদার’র পরিচালনায় অনুষ্ঠানে গ্রুপ পর্বে বিভাগ ভিত্তিক আলোচনায় অংশ নেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন, ইংরেজি ও বাণিজ্য অনুষদের মেধাবী ছাত্ররা।
এইচএসসি-আলীম পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের তাৎক্ষণিক সংবর্ধনা
এইচএসসি-আলীম পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতী ছাত্রদের সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর শাখা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদ সদস্য ও নগর উত্তর সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম বলেন মেধাবী শিক্ষার্থীরা দেশ ও জাতির শ্রেষ্ঠ সম্পদ।
কিন্তু দেশে প্রচলিত রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির কারণে সম্ভাবনাময় মেধাবীরা উচ্চ শিক্ষাঙ্গনে গিয়ে বিপদগ্রস্ত হয়ে তাদের মা বাবার আজন্ম লালিত স্বপ্ন বিনষ্ট করে দিচ্ছে। শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনার অভাবে রাজনৈতিক মাফিয়াদের ফাঁদে পড়ে জীবনের অতি গুরুত্বপূর্ণ সময় হেলায় কাটিয়ে দিচ্ছে। যার ফলে এর খেসারত দিতে যেয়ে সে উচ্চ শিক্ষাগ্রহণ থেকে ঝরে পড়ছে। এর থেকে প্রতিকার পেতে প্রতি বছর মেধার শীর্ষে থাকা অধিকাংশ শিক্ষার্থী পৃথিবীর ধনী দেশগুলোতে গিয়ে উচ্চ শিক্ষা শেষ করে নানা সুযোগ সুবিধা পেয়ে সেখান থেকে আর ফিরে আসছে না।
এ কারণে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে তাদের সেবা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে। দুর্নীতিমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত প্রত্যেক মেধাবীকে নিজের করণীয় নিয়ে ভাবতে হবে অন্যথায় এর থেকে জাতি কখনো পরিত্রাণ পাবে না।
নগর উত্তর শিবির সেক্রেটারি এস কে সিকদার’র পরিচালনায় তাৎক্ষনিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন শিবির নেতা আ স ম রায়হান, কামাল হোসাইন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কয়েক কৃতি ছাত্র তাদের অভিমত ব্যক্ত করেন। শেষে প্রধান অতিথি কৃতী ছাত্রদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের মুখে মিষ্টি তুলে দেন। অনুষ্ঠানে শিবির নেতৃবৃন্দ দেশকে কল্যাণ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে প্রতিটি মেধাবী শিক্ষার্থীকে পড়ালেখার পাশাপাশি আদর্শিক জ্ঞান অর্জন করে নিজেকে একজন পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গঠন করার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ