ঢাকা, মঙ্গলবার 14 July 2020, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ২২ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

জাবিতে লাগাতার অবরোধে শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্ক: সড়ক দুর্ঘটনায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুর, শিক্ষকদের ওপর হামলা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে প্রশাসনের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে লাগাতার অবরোধ শুরু করেছে শিক্ষার্থীরা।

সোমবার সকাল থেকে লাগাতার অবরোধ শুরু করেছে শিক্ষার্থীরা। মামলা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত অবরোধ চলবে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা।

‘প্রতিবাদের নাম জাহাঙ্গীরনগর’ এর ব্যানারে চার দফা দাবিতে সকাল নয়টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন অবরোধ শুরু হয়। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অবরোধ চলছিল।

শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবিগুলো হলো- অবিলম্বে হত্যাচেষ্টার মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, পক্ষপাতদুষ্টু তদন্ত কমিটি বাতিলসহ সকল প্রকার হয়রানি বন্ধ করতে হবে, শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার বিচার করতে হবে, সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

জাবি সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসাইন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মামলা প্রত্যাহারের আশ্বাস দিয়েও মামলা প্রত্যাহার না করে তালবাহানা করছে। তাই দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ায় আমরা বাধ্য হয়ে প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করেছি।’

তবে এ বিষয়ে প্রশাসনের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৭ মে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় মহাসড়ক অবরোধ ও উপাচার্যের বাস-ভবন ঘেরাও করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ওই সময় উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুরের অভিযোগে ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আমরণ অনশনসহ একের পর এক আন্দোলন চালিয়ে আসছে শিক্ষার্থীরা। সর্বশেষ গত ১৭ জুলাই প্রশাসনের ঊর্দ্ধতন কর্তাব্যক্তিরা সাত দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহারের আশ্বাস দিলেও এখনো পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। এজন্য আজ থেকে লাগাতার অবরোধে নামে শিক্ষার্থীরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ