মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

রংপুরে গুলী করে বিকাশ কর্মীর ৫ লাখ টাকা ছিনতাই

রংপুর অফিস : রংপুর নগরীর সাহেবগঞ্জ এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে বিকাশ এজেন্ট শাহারিয়ার সুমন(২৭) নামে এক যুবককে গুলী করে ৫ লাখ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুবৃর্ত্তরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুর পৌনে একটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ধাপ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক এস এম কিবরিয়া টাকা ছিনতাই করার কথা স্বীকার করেছেন।
পুলিশ জানায় রোববার বিকাশ এজেন্ট শাহায়িরার সুমন রংপুর নগরীর সাহেবগঞ্জ এলাকায় বিকাশ ব্যাবসায়ীদের সাথে দেখা করে টাকা আদায় করে ফেরার পথে সাহেবগঞ্জ বাজারের কাছে গ্রামীণ ব্যাংকের কাছে আসলে দুই মটরযোগে ৩ জন করে আরোহণকারী ৬ যুবক তাকে লক্ষ্য করে গুলীবর্ষণ করে। গুলীটি তার গলায় লাগে এর পর দুবৃর্ত্তরা বিকাশ এজেন্ট সুমনের মাথায় কুপিয়ে আহত করে তার কাছে থাকা ৫ লাখ টাকা ছিনতাই করে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়। গুলীর শব্দ পেয়ে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানের হাসপাতালের ১৭ নম্বর সার্জিক্যাল ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছে। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা, মনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন। ওই চিকিৎসক গুলীটি সুমনের গলার ভেতরেই আছে তা বের করা সম্ভব হয়নি। সিটি স্ক্যান করে কাল সোমবার অপারেশন করা হতে পারে বলে জানান তিনি। গুলীবিদ্ধ সুমনের বাড়ি গঙ্গাচড়া উপজেলার গজঘন্টা কব্জিপাড়া গ্রামে। তার বাবার নাম সুলতান উদ্দিন বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে কোতোয়ালী থানার ওসি এবিএম জাহিদুল ইসলাম জানান, দুবৃর্ত্তদের ধরতে অভিযান শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত কাউকেই আটক করা যায়নি। তবে খুব দ্রুতই দুবৃর্ত্তদের আটক করা হবে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।
যুবদল নেতা
ঝন্টুসহ ৫ ছাত্রদল
নেতা কারাগারে
রংপুর জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক ঝন্টুসহ ৫ ছাত্রদল নেতার জামিন আবেদন নাকোচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে আদালক। রোববার বিকেলে রংপুর অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এই আদেশ দেন।
আদালত সূত্র জানায়, রংপুর অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক কামরুন্নাহার মুক্তার আদালতে গতকাল বিকেলে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক ঝন্টু, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি নুর হাসান সুমন, সেক্রেটারি জাকারিয়া ইসলাম জিম, সহসভাপতি নোমান ইসলাম, কারমাইকেল কলেজ সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি। এসময় বিচারক জামিন আবেদন নাকোচ করে তাদের কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। তাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামের সময় নাশকতার একাধিক মামলা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ