মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

আওয়ামী  লীগ বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় থাকার রোল মডেল

খুলনা : গতকাল বুধবার দুুপুরে নগরীর হোটেল টাইগার গার্ডেনে বিএনপি’র উদ্যোগে সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

# আগামী নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধীনে করতে সরকারকে বাধ্য করা হবে

# ফরহাদ মজহারকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে

# আওয়ামী  লীগ জনগণের সাথে প্রতারণা ও ছলচাতুরি করে ক্ষমতায় রয়েছে

খুলনা অফিস : চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানে সব দলের সাথে আলোচনার পর প্রয়োজনে সংবিধান সংশোধনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এর মাধ্যমেই একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করা সম্ভব। 

গতকাল বুধবার দুপুরে নগরীর একটি হোটেলে বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। খুলনা জেলা বিএনপি এ কর্মসূচির আয়োজন করে। 

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবি পুণর্ব্যক্ত করে বলেন, আওয়ামী লীগ আর একটি সাজানো নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে। আগামী নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধীনে করতে সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে বাধ্য করতে হবে। সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের পূর্বে সকল রাজনৈতিক দলের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে করতে দিতে হবে। 

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী  লীগ বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় থাকার রোল মডেল। এ সরকার জনগণের সাথে প্রতারণা ছলচাতুরি করে অনৈতিকভাবে ক্ষমতায় রয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, লবণ ও বিদ্যুতের দাম বেড়েছে। কৃষকের সারের দাম বেড়েছে, অথচ তারা তাদের পণ্যের উৎপাদিত মূল্য পায় না।

কবি ও প্রাবন্ধিক ফরহাদ মজহার প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, ফরহাদ মজহারের মতো একজন মানুষকে অপহরণ করা হয় এবং এখন তাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। রামপাল তাপ বিদ্যুৎ প্রকল্প সম্পর্কে তিনি বলেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে সুন্দরবনের ক্ষতি করবে। সুন্দরবন যদি ধংস হয়ে যায় তাহলে খুলনা বিভাগ হুমকির মুখে পড়বে।

সরকারের নির্যাতনের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর সন্ধান পাঁচ বছরেও পাওয়া যায়নি। পাঁচশরও বেশি নেতাকর্মী গুম হয়ে গেছে।  এক হাজারের বেশি নেতাকর্মীকে গুলী করে হত্যা করা হযেছে। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, এমন দেশ আমরা তৈরি করেছি যেখানে সভা-সমাবেশ করা যায় না। 

বর্তমান সংসদের তীব্র সমালোচনা করে তিনি বলেন, এই পার্লামেন্ট জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। ১৫৩জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। সেই পার্লামেন্টে পঞ্চদশ সংশোধনী গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে কোন নির্বাচন সুষ্ঠ হবে না।

খুলনা জেলা বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন অভিযান কর্মসূচির উদ্বোধীন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট এস এম শফিকুল আলম মনা। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় তথ্য সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত ও জয়ন্ত কুমার কুন্ডু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কুদরতে আমীর এজাজ খান। 

এস এম  মনিরুল হাসান বাপ্পী ও জি এম কামরুজ্জামান টুকুর পরিচালনায় সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত এবং প্রয়াত-নিহত নেতাকর্মীদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং আহতদের সুস্থতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন ওলামা দলের জেলা সভাপতি মাওলানা ফারুক হোসাইন।  সভায় বক্তব্য রাখেন কেসিসির মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান,  সাবেক এমপি সৈয়দা নার্গিস আলী, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি  ডা. গাজী আব্দুল হক, ডুমুরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান খান আলী মুনসুর, রূপসা উপজেলা বিএনপি সভাপতি শেখ আব্দুর রশিদ, জেলা বিএনপির প্রথম যুগ্ম সম্পাদক আবু হোসেন বাবু, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক কে এম আশরাফুল আলম নান্নু, কয়রা উপজেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট মোমরেজুল ইসলাম, পাইকগাছা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ডা. আব্দুল মজিদ, চালনা পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক  মোজাফফর হোসেন, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী এডভোকেট তছলিমা খাতুন ছন্দা, জেলা যুবদল সভাপতি শামীম কবীর, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইবাদুল হক রুবায়েদ, শ্রমিক দলের জেলা সভাপতি উজ্জল কুমার সাহা, স্বেচ্ছাসেবক দলের জেলা যুগ্ম আহবায়ক তৈয়েবুর রহমান, ছাত্রদলের জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি ও বটিয়াঘাটার সুরখালি ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা। 

কর্মসূচির উদ্বোধনী দিনে জেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট এস এম শফিকুল আলম মনা, সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান, সহ সভাপতি ডা. গাজী আব্দুল হক, ৮৬ বছর বয়সী প্রবীণ সদস্য উকিলউদ্দিন সরদার, মোল্লা আবুল কাশেম, সিরাজুল ইসলাম ও নারী প্রতিনিধি এডভোকেট তছলিমা খাতুন ছন্দা সদস্য পদ নবায়ন করেন। নতুন সদস্য পদ গ্রহণ করেন নিহত বিএনপি নেতা সরদার আলাউদ্দিন মিঠুর ভাই সেলিম সরদার ও ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিরিনা দৌলত। 

মধ্যাহ্নের আহার বিরতির পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নগরীর বাবু খান রোডে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য বর্র্ষিয়ান রাজনীতিবীদ ভাষা সৈনিক সাবেক এমপি এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাইকে দেখতে যান। মাহসচিব তার কুশলাদি জানতে চান এবং সুস্থাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামণা করেন। এরপর নগরীর দৌলতপুর দেয়ানা উত্তরপাড়ায় সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ছাত্রদল নেতা শিপলু মোল্লার পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাত করে তাদেরকে শান্তনা দেন। সেখান থেকে মহাসচিব যশোরে ফেরার পথে ফুলতলা উপজেলা সদরে আততায়ীর গুলীতে নিহত জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সরদার আলাউদ্দিন মিঠুর কবর জিয়ারত করেন এবং মিঠুর পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাত করেন। মিঠুর হত্যাকারীরা সরকারের ছত্রছায়ায় রয়েছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব অবিলম্বে খুনীদের গ্রেফতার ও বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানান। এ সময় বিএনপির জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ