ঢাকা, শনিবার 19 September 2020, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ মহররম ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

তুরাগে দু’টি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৩৫ 

অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর তুরাগ থানাধীন তালতলা এলাকায় আজ দু’টি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক গাড়ি চালক নিহত এবং শিশু ও মহিলাসহ অন্তত ৩৫ জন যাত্রী আহত হয়েছে। 

তারা হচ্ছে- মশিউর রহমান (২৭), মো. জয়নাল (২৮), আইয়ুব আলী (৩৫), মুনসুর আলী (৩৬), মামুন মোল্লা (২৩), আব্দুল সাত্তার (৫৫), তুহিন (২৮), আশিকুর রহমান (২২), শহিদুল ইসলাম (৫০), মলয় (২৭), সুলতান মিয়া (৫৬), মো. নূর উল্লাহ (৪২), আলতাফ হোসেন (৫৫), নুরুল ইসলাম নুরু (৫২), মনিরুল (৩২), তুষার (২২), রাফিকুল ইসলাম বাপ্পি (২১), অহিদুল (৩০), সাহেব আলী (৩৪), আব্দুল আউয়াল (২২), রুহুল আমিন (৩১), শহিদ হাসান (২৬), মায়নুর মোল্লা (৩৩), আসমা আক্তার (২১), জান্নাত (২০), হাজী আব্দুল (৬০), সুমন (২৫), মাসুদ আলম (৩৩), মুশফিক (২৮), হাবিব (২৯), মনিরুল, মাসুদ ও ইমতিয়াজ। এর মধ্যে দুজনের নাম- পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা গুরুতর। নিহত গাড়ি চালকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। 

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তুরাগের বেরীবাঁধ কামারপাড়া-আশুলিয়া সড়কের তালতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে তুরাগ থানা পুলিশ, উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে। পরে তাদের তুরাগের ইস্ট ওয়েস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করা হয়। তুরাগ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো: দুলাল হোসেন বাসসকে জানান, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তুরাগের কামারপাড়া- আশুলিয়া বেড়ীবাঁধ সড়কের তালতলা এলাকায় ঢাকা থেকে জামালপুরগামী এসকে জননী পরিবহনের একটি বাস এবং সাভারের আশুলিয়া থেকে আব্দুল্লাহপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা আশুলিয়া ক্লাসিক পরিবহনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় দু’টি বাসের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে মহিলা ও শিশুসহ অন্তত ৩৫ জন যাত্রী আহত হয়। 

তিনি আরো জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত গাড়ী চালককে হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। তার নাম এখনও জানা যায়নি। পরবর্তীতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তুরাগ থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। -বাসস

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ