ঢাকা, মঙ্গলবার 29 September 2020, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে সিলেটের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত

অনলাইন ডেস্ক: দ্বিতীয় দফা বন্যায় সিলেটের কুশিয়ারা নদীর নড়বড়ে ডাইক ভেঙ্গে বিয়ানীবাজার উপজেলাসহ বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বানভাসি মানুষের দাবি, ডাইকগুলো সময় মতো মেরামত করা গেলে ক্ষতি পরিমাণ এতোটা হতো না। এ অবস্থায় আগামী শুষ্ক মৌসুমে ক্ষতিগ্রস্ত ডাইক মেরামত করা হবে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

সুনামগঞ্জের পর এবার সিলেটের কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে শত শত হেক্টর ফসলি জমি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। পাশাপাশি বাসাবাড়ি, দোকানপাট, হাটবাজার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও পানির নিচে। এই অবস্থার জন্য এলাকাবাসী পানি উন্নয়ন বোর্ডকে দায়ী করেছে।

স্থানীয়রা বলেন, 'কুশিয়ারা নদীর বাঁধ ভাঙন আগের বছরেও ছিলো সরকার বা কোনো সংস্থা পক্ষ থেকে এটির মেরামত করা হয়নি। আমাদের সব ভেঙে নদীতে চলে যাচ্ছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে আমরা অনেকবার বলেছি তারা যদি দ্রুত ব্যবস্থা নিত তাহলে আজকে এই অবস্থা হতনা।'

অন্যদিকে, কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণে দুর্বল ডাইকগুলো ভাঙ্গনের মুখে পড়ছে বলেও অভিযোগ স্থানীয়দের।

সিলেট বিয়ানীবাজার পৌরসভা মেয়র মো. আবদুস শুকুর বলেন, ' আমি মনে করি নদীতে অবৈধে ড্রেজিং এর কারণে এই ডাইক গুলোর ভাঙন।'

অবশ্য কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালুর উত্তোলন বন্ধের আশ্বাস দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আর ডাইকগুলো মেরামতের ঘোষণা দেয় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

দ্বিতীয় দফা বন্যায় সিলেটের আট উপজেলার ৫৫টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভার সাড়ে পাঁচ হাজার হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।-সময় টিভি নিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ