বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নীলফামারী জেলা জামায়াতের আমীর ও সেক্রেটারির নামে মামলা

 

নীলফামারী সংবাদদাতা ঃ নীলফামারীর জলঢাকায় পুলিশ আটজন শিবির নেতাকর্মীকে আটক করলেও মামলা দায়ের করেছে জেলা জামায়াতের আমীর, সেক্রেটারি , জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের আমীর ও সেক্রেটারি সহ ৪১ জনের নামে বলে জানিয়েছে জেলা জামায়াতের আমীর আব্দুর রশীদ। 

পুলিশ জানায় নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা এলাকা থেকে জলঢাকা উপজেলা ইসলামী ছাত্র শিবিরের সভাপতি সাব্বির আহমেদ (২০), অর্থ বিষয়ক সম্পাদক রেজাউল করিম (২০), ছাত্রশিবির কর্মী গোলাম রব্বানী (১৯), তরিকুল ইসলাম (১৯), আশরাফুল ইসলাম (১৮), আব্দুল্লাহ (১৮), মাহমুদ আল হাসান (১৮) ও আবেদ আলীকে (১৮) আটক করা হয়।

এদিকে জেলা জামায়াতের আমীর আব্দুর রশীদ জানান জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা বাজারের একটি মসজিদ থেকে শিবিরের ৮ নেতাকর্মীকে আটক করে জলঢাকা থানা পুলিশ। অথচ পরের দিন পুলিশ জেলা জামায়াতের আমীর আব্দুর রশীদ, সেক্রেটারী মাওলানা আব্দুর সাত্তার , জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের আমীর সাবের হোসেন ও সেক্রেটারি কামারুজ্জামান সহ ৪১জনকে আসামী করে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেন। জেলা জামায়াতের নেতৃবৃন্দের নামে মামলা করায় তিনি নিন্দা জ্ঞাপন করেন। 

জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি কামারুজ্জামান জানান যেখান থেকে শিবিরের নেতাকর্মীদের আটক করা হয়ে সেখান থেকে জেলা ও উপজেলা জামায়াতের আমীর ও সেক্রেটারির বাড়ি অনেক দূরে। অথচ পুলিশ তাদেরকে আসামী করে মামলা দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ