শনিবার ০৮ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পবিত্র ঈদুল ফিতর ভ্রাতৃত্ব সৃষ্টির সেতুবন্ধন

বরকল ছালামতিয়া সুন্নিয়া সিনিয়র মাদরাসা প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী ও বার্ষিক সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখছেন প্রাশিপ সদস্য সচিব মাওলানা ক্বারী মুহাম্মদ ফেরদৌসুল আলম খান আলকাদেরী

বরকল ছালামতিয়া সুন্নিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিষদ (প্রাশিপ)’র আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী ও বার্ষিক সাধারণ সভা গত ২৭ জুন‘১৭ বিকালে বরকল মাদ্রাসা অডিটরিয়ামে প্রাশিপের আহবায়ক সংগঠক মুহাম্মদ জসিম উদীন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রাশিপ সদস্য সচিব মাওলানা ক্বারী মুহাম্মদ ফেরদাউসুল আলম খান আলকাদেরী। বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন প্রাশিপ অর্থ সচিব জি এম শাহাদত হোসাইন মানিক। মুহাম্মদ আবদুল মুবিনের সঞ্চালণায় সভায় বক্তব্য রাখেন এডভোকেট মুহাম্মদ মোরশেদুল আলম খান, মাওলানা মুহাম্মদ মাজহার হেলালী, মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন ছিদ্দিকী, মুহাম্মদ আবুল মনসুর, মুহাম্মদ মনজুর মোরশেদ চৌধুরী, মোহাম্মদ এমরানুল হক খান, মাওলানা ক্বারী মুহাম্মদ দিদারুল আলম চৌধুরী, মুহাম্মদ জসিম সওদাগর, মাওলানা কাজী মুহাম্মদ আজিজুল হক, মাওলানা হফেজ মুহাম্মদ ছিবগতুল্লাহ চৌধুরী, আলহাজ্ব মুহাম্মদ সাঈদ ইবনে খায়ের, মাওলানা জহির আহমদ, মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, জি এম জাহেদুল আলম, মাওলানা মুহাম্মদ খোরশেদুল আলম চৌধুরী, মুহাম্মদ শাহজাদা খান, মুহাম্মদ হামিদুর রহমান খান, মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন এরশাদ, মুহাম্মদ আরকান, মাওলানা মুহাম্মদ জালাল উদ্দিন, মুহাম্মদ ইমরান হোসেন, হাসনাইন রেজা হাসিব, মোহাম্মদ আদনান, শহিদুল ইসলাম খোকা ভূইয়া, হাফেজ মুহাম্মদ সেকান্দর ইসলাম, মুহাম্মদ রিজাত হোসেন, মোহাম্মদ রমজান আলী, হাফেজ মুহাম্মদ মঈন উদ্দিন খান, মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন, হাফেজ মুহাম্মদ শফিউল করিম খান, মুহাম্মদ রিজাত হোসেন, মুহাম্মদ শাহেদুল ইসলাম।
সভায় বক্তারা বলেন, যুগে যুগে নৈতিক অবক্ষয় রোধে ধর্মীয় শিক্ষা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় সাবেক এমপিএ আলহাজ্ব সোনা মিয়া চৌধুরী (রহঃ)‘র প্রতিষ্ঠিত বরকল ছালামতিয়া সুন্নিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা সুনাগরিক সৃষ্টিতে ধারাবাহিক ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। বক্তারা আরো বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতর মুসলিম উম্মাকে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ করে একটি সুন্দর ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার শিক্ষা দেয়। প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিষদের এই ঈদ পুনর্মিলনী নিজেদের মধ্যে ভ্রাতৃত্বের বন্ধন দৃঢ় করতে ভূমিকা রাখবে নিঃসন্দেহে। বার্ষিক সাধারণ সভায় খসড়া গঠনতন্ত্র অনুমোদন, আসন্ন সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্যাপনের বাজেট প্রণয়ন সহ গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন মুহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, মুহাম্মদ ওয়াহিদুল আলম, মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন, মুহাম্মদ ইমরান হোসেন তুষার, মোহাম্মদ রিফাত, মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান, মুহাম্মদ আলী আজগর, মুহাম্মদ ইমরান হোসেন, মুহাম্মদ আবদুল কাদের, মুহাম্মদ নুরুল আবছার, মুহাম্মদ মাহফুজুল আলম, মুহাম্মদ আবু ছালেহ, মুহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, মুহাম্মদ ইলিয়াছ, মুহাম্মদ আলী আকবর, মুহাম্মদ রাসেল উদ্দিন চৌধুরী, মুহাম্মদ আরাফাত হোসেন, মুহাম্মদ হায়দারুল আলম, মো: তৌহিদুল ইসলাম, মুহাম্মদ রবিউল হোসেন, মুহাম্মদ নাঈম উদ্দিন জাহাঙ্গীর, মুহাম্মদ আবদুর রহমান, মুহাম্মদ আনিসুল ইসলাম, মুহাম্মদ এমরানুল হক, মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন, মুহাম্মদ ফরহাদ হোসেন, মুহাম্মদ ইসলাম খান, মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম, মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম আনোয়ারী, মুহাম্মদ মামুন, মোহাম্মদ বাবর হোসেন খান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ