শনিবার ০৮ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে হবে নির্বাচন বিএনপি সেই নির্বাচনে অংশ নেবে

খুলনা : পবিত্র মাহে রমযান উপলক্ষে ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ড্যাব আয়োজিত ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন

খুলনা অফিস : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অবশ্যই অংশ নেবে বলে জানিয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও ড্যাবের মহাসচিব প্রফেসর ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন। তবে সে নির্বাচন হবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দেয়া রূপরেখা অনুযায়ী নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে। তিনি বলেন, বিএনপি জনগনের জন্য রাজনীতি করে। গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল হিসেবে নির্বাচনের বাইরে অন্য কোন পন্থায় ক্ষমতার পরিবর্তনে বিএনপি বিশ্বাস করেনা। বরং এরশাদ, মইনউদ্দিন-ফখরুদ্দিনসহ যতবার এদেশে অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় এসেছে, তাদেরকে আওয়ামী লীগ সমর্থন জানিয়েছে। একইভাবে ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে তাদের ১৫৪ জন বিনা ভোটে এমপি হয়েছেন। তিনি অভিযোগ করেন, জনগণের প্রতি এদের পূর্বপুরুষদের যেমন আস্থা ছিল না, তেমনি এদেরও নেই। ক্ষোভের সাথে বলেন, এ কারনেই জনগনের ভোটে নির্বাচিত বিএনপির মেয়র ও জনপ্রতিনিধিদের এ সরকার জেলে পাঠিয়েছে। এ পরিস্থিতি থেকে ফেরাতে জনগণকে ঘুরে দাড়ানোর আহবান জানিয়ে বলেন, প্রতিরোধ গড়ে তুলতে না পারলে একের পর এক মিঠুরা (সরদার আলাউদ্দিন মিঠু) হারিয়ে যাবে। আর বিবৃতি দেয়া হবে, অমুকে খুন করেছে, তমুকে অর্থ যোগান দিয়েছে।
শনিবার (১৭ জুন) খুলনায় ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ড্যাব আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন এসব কথা বলেন। নগরীর খুলনা ক্লাব অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ড্যাবের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুমেক শাখার সভাপতি প্রফেসর ডা. সেখ মো. আখতার উজ জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, ড্যাবের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক প্রফেসর ডা. মোস্তাক রহিম স্বপন, কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব প্রফেসর ডা. মো. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, খুলনা জেলা সভাপতি ডা. মো. রফিকুল হক বাবলু, মহানগর সভাপতি ডা. মোস্তফা কামাল। ডা. শওকত আলী লস্করের উপস্থাপনায় ইফতার মাহফিলে অংশ নেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা ও কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, এডভোকেট গাজী আব্দুল বারী, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, রেহানা আক্তার, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, বিজেপির মহানগর সভাপতি এডভোকেট লতিফুর রহমান লাবু, খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট আব্দুল্লাহ হোসেন বাচ্চু, এডভোকেট এস আর ফারুক, এডভোকেট এম এ আজিজ, এডভোকেট নুরুল হাসান রুবা, খুলনা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি শেখ দিদারুল আলম, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি প্রফেসর ড. রেজাউল করিম, প্রফেসর ড. রকিবউদ্দিন, প্রফেসর কওসার আলী, প্রকৌশলী বিশ্বাস শাহাদাত হোসেন, কৃষিবীদ এম এ আজিজ, এ্যাবের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম জুয়েল, শিক্ষক সমিতির অধ্যাপক মনিরুল হক বাবুল, ড্যাব নেতা ডা. এম এ লতিফ, ডা. মো. শাহজাহান আলী, নড়াইল ড্যাবের ডা. মশিউর রহমান বাবু, মাগুরা ড্যাবের ডা. শরিফুল ইসলাম তুষার, বাগেরহাট ড্যাবের ডা. মোল্লা এমদাদুল হক।
আলোচনা শেষে দেশ জাতির কল্যাণ কামনা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়। জাতীয়তাবাদ ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী বিভিন্ন পেশাজীবী ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে ইফতারে অংশ নেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ