ঢাকা, মঙ্গলবার 29 September 2020, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

দুবাইয়ে কোরআন তেলাওয়াতে প্রথম বাংলাদেশের তারিকুল

অনলাইন ডেস্ক: ২১তম দুবাই আন্তর্জাতিক কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন বাংলাদেশি কিশোর মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রিন্স শেখ আহম্মাদ বিন মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে তারিকুলসহ প্রতিযোগিতার অন্য বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।  

বাংলাদেশের কয়েকটি প্রতিযোগিতায় শীর্ষ স্থান দখল করা ১৩ বছর বয়সী তারিকুল বিশ্বের ৮৯ জন প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান দখল করেন বলে গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়।

কোরআন তেলাওয়াত বিভাগে বিজয়ী হিসেবে তারিকুলের হাতে আড়াই লাখ দিরহামের চেক তুলে দেওয়া হয়। প্রতিযোগিতায় ‘সুন্দর কণ্ঠ’ বিভাগেও চতুর্থ হয়েছেন বাংলাদেশের এই কিশোর।   

প্রথম পুরস্কার হাতে পাওয়ার পর তারিকুল ইসলাম বলেন, “এটা যে হয়েছে তা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। আল্লাহর রহমতে আমি ভালো করেছি তা জানতাম। প্রথম পাঁচজনের মধ্যে থাকব বলে ভেবেছিলাম। কিন্তু প্রথম পুরস্কার লাভের বিষয়টি সত্যিই অবিশ্বাস্য।”

এই পুরস্কার পাওয়ার পেছনে তার মা-বাবা ও শিক্ষকের অবদানের কথা তুলে ধরে তাদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

আল মামজারে দুবাই সাংস্কৃতিক ও বিজ্ঞান সমিতি মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানে এ বছরের সেরা ইসলামী ব্যক্তিত্ব হিসেবে সৌদি আরবের বাদশা সালমানকে সম্মাননা জানানো হয়।

একটানা নয় রাত কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা চলার পর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। প্রথম রোজায় দুবাই চেম্বার অব কমার্স মিলনায়তনে এ প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের হুজাইফা সিদ্দিকী প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান দখল করে দুই লাখ দিরহাম জিতে নেন। ‘সুন্দর কণ্ঠ’ বিভাগেও প্রথম হয়েছেন তিনি।

গাম্বিয়ার মোডুউ জোবে, সৌদি আরবের আবদুল আজিজ আল ওবায়দান এবং তিউনিশিয়ার রশিদ আলানি তেলাওয়াত বিভাগে যৌথভাবে তৃতীয় হয়েছেন। তারা পুরস্কারের এক লাখ ৫০ হাজার দিরহাম ভাগাভাগি করে নিয়েছেন।

প্রতিযোগিতার সেরা দশে থাকা অন্য প্রতিযোগীদের মধ্যে বাহরাইনের মুহানা আহম্মেদ (ষষ্ঠ), লিবিয়ার মোহাম্মদ আল হাদী আলবশের নাজিয়া এবং কুয়েতের ওমর আলফাই (যৌথভাবে সপ্তম), মৌরতানিয়ার মোহামেদু আবেকা (নবম) এবং রুয়ান্ডার হাবিমানা মাকিনি ও মিশরের মোহাম্মদ নাগিব (যৌথভাবে দশম) রয়েছেন।-বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ