সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

৪১ বছর পর স্বামী হত্যার বিচার চায় রহিমা

মোঃ মাহতাব উদ্দিন, চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা: ৪১ বছর পর চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভুলটিয়া গ্রামের রহিমা তাঁর স্বামী আফতাব হত্যার বিচার দাবী করেছেন। তিনি আইনগত সহায়তা চেয়ে স্থানীয় মানবতা ফাউন্ডেশনে আবেদন করেছেন।
প্রকাশ, ১৯৭৬ সালে ১ মাঘ তার স্বামীর মাথা ব্যথার চিকিৎসার জন্য তার ভাসুরের দুই ছেলে আবুল ও ফজলু চুয়াডাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তির জন্য নিয়ে যায়। ওরা বাড়ী ফিরলেও রহিমার স্বামী ফিরে যায়নি। ২০ দিন পর ভাসুরের দুই ছেলে আবুল ও ফজলু বলে যে, তোমার স্বামী হাসপাতালে মারা গেছে। এ সংবাদ পেয়ে রহিমা স্বামীর লাশ দেখার জন্য হাসপাতালে ছুটে যায়। অথচ হাসপাতাল থেকে জানানো হয় আফতাব নামে কেউ ২০ দিনের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তিই হয়নি। তাদের আচরণে সন্দেহ হলেও ৫ মেয়ের মুখপানে চেয়ে রহিমা ভয়ে ভাইপোদের নামে কোন মামলা করতে পারেনি। জমির লোভে তারা একাজ করেছে বলে জানা যায়। রহিমা বলেন যে, স্বাধীনতার সময় বা পরে যাদের হত্যা করা হয় বর্তমানে তাদের অনেকের হত্যার বিচার এখন হচ্ছে। তাই রহিমা এখন তাঁর স্বামীর হত্যার বিচার চেয়ে মানবতা ফাউন্ডেশনের কাছে সহায়তা চেয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ