সোমবার ৩০ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

আমতলীর আমেনার সংসারে সুখের ছোঁয়া

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা: বরগুনার আমতলীতে হার না মানা এক জীবন সংগ্রামী নারী আমেনা বেগম। এক সময় দারিদ্রতা ছিল তার নিত্য সঙ্গী। অর্ধাহারে অনাহারে জীবন চলত তার। অদম্য ইচ্ছে শক্তি নিরলস পরিশ্রম ও আত্মপ্রত্যায় আমেনা বেগমকে দারিদ্র্যতা থেকে আলোর পথে এনেছে। আমেনা বেগম বিডিএস আমতলী  শাখার  বৈঠাকাট শাপলা মহিলা সমিতিতে ২০১৫ সালে সদস্যা হয় এবং ২০ হাজার  টাকা ঋণ গ্রহণ করে বৈঠা গ্রামে তার  বাড়ির সামনে ৫ শতাংশ জমিতে সবজি চাষ শুরু করেন। সবজি বিক্রি করে খুব লাভবান হন। ঐ জমিতে সারা বছর একের পর এক সবজি চাষ করেন তিনি ২০১৬ সালে তিনি ৩০ হাজার  টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। ঋণের  টাকা পরিশোধ করে  পুনরায় ৬০ হাজার  টাকা ঋণগ্রহণ করে আরও ৫ শতাংশ জায়গা মোট ১০ শতাংশ জমিতে সবজি চাষ করেন। বর্তমানে তার সবজি বাগানে পুঁইশাক, বেগুন, ডাঁটা শাক ও পাটশাক রয়েছে। সবজি বিক্রির টাকা দিয়ে নিয়মিত ঋণ পরিশোধ করে  এবং নিজেরা  খায় এবং আত্মীয় সজনের বাড়ী ও মাঝে মাঝে পাঠায়। বর্তমানে তার বিডি এস এ ১২৩৮০ টাকা সঞ্চয় রয়েছে। ভালভাবে সংসার পরিচালনা করেন। বর্তমানে তিনি স্বামী সন্তান নিয়ে সুখে আছেন। আমেনা বেগমের এ সাফল্য সম্পর্কে বিডিএস’র আমতলী শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ মরিুজ্জামান হাওলাদার বলেন,কঠোর পরিশ্রম,ও সততা ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়ে দারিদ্র্য জয়ী আমেনা বেগমকে আজকের এ অবস্থানে নিয়ে এসেছে। আমেনার মত বিডি এস আমতলী শাখায় ২৫ জন সবজি চাষী রয়েছেন। তারা প্রতেকেই আজ স্বাবলম্বী। তারা সংসারের  অভাব অনটনের দুঃখ কষ্টের পরিবর্তে পেয়েছে সুখের ছোয়া।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ