সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পুলিশ হেফাজতে সাতকানিয়া জামায়াত নেতা আহমদ ছফার মৃত্যু

 

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রামে পুলিশের হেফাজতে সাতকানিয়ার পশ্চিম ঢেমশা ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি আহমদ ছফা (৪২)র মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে তার মৃত্যু হয়। জামায়াত নেতারা বলছেন, রিমান্ডে নির্যাতনেই আহমদ ছফার মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশ বলছে, আহমদ ছফা ডায়াবেটিস ও যক্ষ্মা রোগে আক্রান্ত ছিলেন। এসব রোগের কারণে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ছে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত পৌনে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

 জানা গেছে, আহমদ ছফা সাতকানিয়ার রামপুর এলাকার পশ্চিম ঢেমশার মৃত এজাহার মিয়ার পুত্র। আহমদ ছফা ২ মেয়ে ১ ছেলের বাবা ছিলেন। তিনি চট্টগ্রাম নগরীর শেখ মুজিব রোডের “ছাফা মোটরস” নামে তার একটি মোটর পার্টসের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন। আগ্রাবাদ মোল্লাপাড়স্থ “নীরিবিলি” নামে একটি ভবনে স্বপরিবারে বসবাস করতেন তিনি। তার লাশ সাতকানিয়ার পশ্চিম ঢেমশায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয় এবং আছর নামাযের পর জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। 

গতকাল বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জামায়াতের পক্ষ থেকে বলা হয়, রমযান মাসকে সুচারুরূপে পালন করার মহৎ উদ্দেশে চট্টগ্রাম শহরে বিগত ২৪ মে এক জামায়াত কর্মীর বাসায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী সাতকানিয়া উপজেলা আমীর মাওলানা আবুল ফয়েজসহ ৬/৭ জন পরামর্শ করার জন্য সন্ধ্যা ৭টার দিকে মিলিত হন। এমতাবস্থায় পুলিশ অতর্কিত অভিযান চালিয়ে গোপন বৈঠক করার অভিযোগে উপস্থিত সকলকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে সাতকানিয়ার পশ্চিম ঢেমশা ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি আহমদ ছফাও ছিলেন। গতকাল বুধবার গ্রেফতারকৃত সকলকে রিমা-ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশি হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত ৮টার দিকে আহমদ ছফা (৪২) ভীষণ অসুস্থা অনুভব করলে তাৎক্ষণিকভাবে তাঁকে উপযুক্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়নি; ফলে তিনি রাত ৯টার সময় পুলিশি হেফাজতে ইন্তিকাল করেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। 

এদিকে বিনা চিকিৎসায় পুলিশি হেফাজতে আহমদ ছাফার মৃত্যুতে শোক ও হত্যাকা-ের বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবীতে জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহাগনরী, উত্তর ও দক্ষিণ জেলার নেতৃবৃন্দ, জামায়াতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর ও সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার সাবেক এমপি মাওলানা আ. ন. ম. শামসুল ইসলাম, মহানগরী আমীর মাওলানা মুহাম্মদ শাহজাহান, সেক্রেটারী মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, উত্তর জেলা জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আমিরুজ্জামান ও দক্ষিণ জেলা জামায়াতের আমীর মুহাম্মদ জাফর সাদেক এক যুক্ত বিবৃতি প্রদান করেন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, এভাবে নিরীহ লোকদেরকে বাসা থেকে ধরে নিয়ে গ্রেফতার করা, মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা এবং রিমান্ডের নামে নিপীড়ন করা আইনের শাসনের সম্পূর্ণ পরিপন্থি এবং চরম মানবাধিকার লংঘন। আমরা এ ধরণের অকথ্য নির্যাতন ও জুলুমে তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি এবং এ মৃত্যূর সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত দাবী করছি। নেতৃবৃন্দ তাঁর ইন্তেকালে ৩দিনের কর্মসূচী যথাক্রমে বৃহস্পতিবার নামাযে জানাযা, জুমাবার মসজিদে মসজিদে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত, শনিবার শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সমাবেশ এর কর্মসূচী ঘোষণা করেন। বিবৃতিতে জামায়াত নেতৃবৃন্দ সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নিরপরাধ জামায়াত কর্মী ও ব্যবসায়ী আহমদ ছাফাকে ডি.বি পুলিশ রিমান্ডের নামে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে জামায়াত কর্মী আহমদ ছাফার হত্যাকা-ের সুষ্ঠু ও বিচার বিভাগীয় তদন্ডের দাবী জানান। বিবৃতিতে জামায়াত নেতৃবৃন্দ মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবার বর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। 

সাতকানিয়ার জামায়াত কর্মী আহমদ ছাফার জানাজা দোয়া মাহফিল ও ৩ দিনের কর্মসূচী ঘোষণা- চট্টগ্রাম  পুলিশের রিমান্ডের নামে নির্যাতনে সাতকানিয়ার জামায়াত কর্মী আহমদ ছাফার মৃত্যুতে গভীর শোক, তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দোষী পুলিশ কর্মকর্তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহানগরীর উদ্যোগে জামায়াত কর্মী আহমদ সাফার স্মরণে এক দোয়া মাহফিল বাকলিয়ায় চট্টগ্রাম মহানগরী জামায়াতের সেক্রেটারী মুহাম্মদ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জামায়াতের আমীর মুহাম্মদ জাফর সাদেক। দোয়া মাহফিলে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, দক্ষিণ জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর মুহাম্মদ ইসহাক, নগর জামায়াতের প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ উল্লাহ্, নগর উত্তর শিবিরের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, সাতকানিয়া উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মো: ইব্রাহীম চৌধুরী, নগর জামায়াত নেতা এম.এ.আলম, ফয়সাল মুহাম্মদ ইউনুছ। দোয়া মাহফিলে মোনাজাত পরিচালনা করেন, দক্ষিন জেলা জামায়াতের আমীর মুহাম্মদ জাফর সাদেক। মাহফিলে চট্টগ্রাম মহানগরী সেক্রেটারী মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম জামায়াত কর্মী আহমদ ছাফার হত্যাকা-ের সুষ্ঠু তদন্ত ও দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহানগরী ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলায় ৩ দিনের কর্মসূচী ঘোষণা করেন।  ২জুন জু’মাবার দোয়া দিবস।  ৩ জুন শনিবার চট্টগ্রাম মহানগরীর থানায় থানায় বিক্ষোভ দিবস পালন। উপরোক্ত কর্মসূচী পালনের জন্য মহানগরী ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সকল উপজেলা ও থানা সংগঠনের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ