মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

চলতি সপ্তাহেই ট্রাম্প নওয়াজ বৈঠক

১৫ মে, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন : ৬ মাস ধরে অপেক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে। এর মধ্যে ‘অসাধারণ ও অভূতপূর্ব’ টেলিকথপোকথন হয়েছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে। কিন্তু মুখোমুখি সাক্ষাত হয়নি। সৌদি আরবে ইউএস-আরব ইসলামিক সামিটে দুই নেতার সাক্ষাত হবে এবার। আর ওই সামিটে প্রায় দুই ডজন মুসলিম দেশের শীর্ষ নেতারা যোগ দিচ্ছেন। সামিট শুরু হচ্ছে ২১ মে। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতর বলছে সামিটের এক ফাঁকে দুই নেতা দ্বিপাক্ষিক ইস্যু নিয়ে বৈঠকে বসবেন। আলোচনা হবে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যু নিয়েও। ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের উত্তেজনাকর সম্পর্ক ও আফগানিস্তানে ফের সন্ত্রাস মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার বিষয়টি বৈঠকে প্রাধান্য পেতে পারে। আফগানিস্তানে মার্কিন নীতির পরিবর্তন ঘটতে পারে। ট্রাম্পের আগের শাসনামলে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের যে সম্পর্ক ও বিশেষ করে দক্ষিণ এশিয়ার ব্যাপারে মার্কিন নীতির পরিবর্তনের আভাস দিচ্ছেন অনেকে। এমনকি পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যেকার অবনতিশীল সম্পর্ক উন্নয়নে মধ্যস্ততা করতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র। যদিও ভারতের পক্ষ থেকে বিষয়টি দ্বিপাক্ষিক আলোচনার বিষয় বলে এতদিন বলা হচ্ছে। এর আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সঙ্গে টেলিফোনে দেশটি সফরের ইচ্ছা ব্যক্ত করে বলেছেন, তিনি চমৎকার একটি দেশ, চমৎকার মানুষ ও চমৎকার একটি স্থান সফরে আসতে চান। ট্রাম্প বলেন, পাকিস্তানি নাগরিকদের জানিয়ে দিন, তারা অসাধারণ ও ব্যতিক্রমী। ইসলামাবাদ এ দুই নেতার টেলিকথপোকথন প্রকাশ করে। সম্প্রতি ট্রাম্প প্রশাসন থেকে আফগানিস্তানে আরো মার্কিন সৈন্য মোতায়েনের কথা বলার পর বিষয়টি নিয়ে প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা জরুরি হয়ে উঠেছে। এর কারণ আফগানিস্তানে দীর্ঘকালীন সংঘাতের শান্তিপূর্ণ অবসান ঘটাতে নওয়াজ-ট্রাম্প বৈঠক থেকে কোনো নতুন দিকনির্দেশনা আসতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ